ঢাকা ০৪:০১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন যুবলীগ নেতার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী গ্রেফতার! ৪ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি’কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে দাগনভূঁঞা থানা পুলিশ দূর্নীতিমুক্ত রিহ‍্যাব গড়তে চান আলিমুল্লাহ খোকন টিলাগাঁও আজিজুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের তৃতীয় বারের মত সভাপতি নির্বাচিত শামিম আহমদ ‘কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এর ‘কিশোর গ্যাং-কীভাবে এলো, কীভাবে রুখবো’দুইটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

ওসির দুরদর্শী নেতৃত্বে কলাবাগানের শিশু গৃহকর্মী হেনা হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী সাথী পারভিন গ্রেফতার করছে কলাবাগান থানা পুলিশ

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ১০:৪০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ২১২৮ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর অর্জনের পাল্লা সুনামের খাতা প্রতিনিয়ত বেড়ে যাচ্ছে।পুলিশ জনগণের বন্ধু,জনগণের জানমাল হেফাজতের দায়িত্ব পুলিশের।সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার জন্য নিরলস সেবার কাজ করে যাচ্ছেন বাহিনীটি ।করোনাকালীন মহুর্তে নজীর বিহীন মানব সেবা দিয়ে বাংলাদেশ পুলিশ সারা বিশ্বব্যাপি সমার্ধিত হয়েছেন।

সাম্প্রতিক সময়ে রাজধানীর কলাবাগানের ভূতের গলি এলাকার একটি বাসা থেকে হেনা(১০) নামে গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।গত ২৭ আগষ্ট শনিবার ভবনের কেয়ারটেকারের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ ফ্ল্যাট থেকে দশ বছর বয়সি শিশুটির লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানতে পারে ওই ফ্ল্যাটে বসবাস করতো আসামি সাথী পারভিন ডলি(৪০)।তার বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতো হেনা।

গত শুক্রবার হেনা কে হত্যা করে ফ্রিজ রেখে ফ্ল্যাটে তালা দিয়ে তিনি তাড়াহুড়ো করে বেরিয়ে যান। শনিবার না ফেরায় কেয়ারটেকার ওই ফ্ল্যাটে গিয়ে ডাকাডাকি করে। কোনো সাড়া না পেয়ে বিষয়টি থানায় জানানো হলে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে তারা ভেতরে প্রবেশ করে এবং লাশ উদ্ধার করে। তখন কলাবাগান থানা পুলিশ শিশুটির নাম-পরিচয় সনাক্ত করতে পারেনি।

ভবনের নিরাপত্তা প্রহরী পুলিশকে জানায়, ওই ফ্ল্যাটে শিশুটি গৃহকর্মীর কাজ করত। প্রতিবেশীদের কয়েকজন জানান, হত্যার পর শিশুটির লাশ ফ্রিজে রাখা হয়েছিল। ফ্রিজ থেকে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সময় কলাবাগান থানা পুলিশ একটা হত্যা মামলা দায়ের করেন ।

এই বিষয়ে ডিএমপি কলাবাগান থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান,গৃহকর্মী হেনা কে হত্যা করে আসামী সাথী পারভিন পালিয়ে যায়, প্রযুক্তির সহযোগিতায় কলাবাগান থানার একটি চৌকস ট্রিম এজেহার নামীয় আসামী সাথী পারভিন ডলি(৪০)কে অদ্য ২ সেপ্টেম্বর ২৩ ইং যশোর কোতোয়ালি থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান তিনি।আগামীকাল দুপুর ১২ টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানাবেন রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে

ওসির দুরদর্শী নেতৃত্বে কলাবাগানের শিশু গৃহকর্মী হেনা হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী সাথী পারভিন গ্রেফতার করছে কলাবাগান থানা পুলিশ

আপডেট সময় : ১০:৪০:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর অর্জনের পাল্লা সুনামের খাতা প্রতিনিয়ত বেড়ে যাচ্ছে।পুলিশ জনগণের বন্ধু,জনগণের জানমাল হেফাজতের দায়িত্ব পুলিশের।সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার জন্য নিরলস সেবার কাজ করে যাচ্ছেন বাহিনীটি ।করোনাকালীন মহুর্তে নজীর বিহীন মানব সেবা দিয়ে বাংলাদেশ পুলিশ সারা বিশ্বব্যাপি সমার্ধিত হয়েছেন।

সাম্প্রতিক সময়ে রাজধানীর কলাবাগানের ভূতের গলি এলাকার একটি বাসা থেকে হেনা(১০) নামে গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।গত ২৭ আগষ্ট শনিবার ভবনের কেয়ারটেকারের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ ফ্ল্যাট থেকে দশ বছর বয়সি শিশুটির লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানতে পারে ওই ফ্ল্যাটে বসবাস করতো আসামি সাথী পারভিন ডলি(৪০)।তার বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতো হেনা।

গত শুক্রবার হেনা কে হত্যা করে ফ্রিজ রেখে ফ্ল্যাটে তালা দিয়ে তিনি তাড়াহুড়ো করে বেরিয়ে যান। শনিবার না ফেরায় কেয়ারটেকার ওই ফ্ল্যাটে গিয়ে ডাকাডাকি করে। কোনো সাড়া না পেয়ে বিষয়টি থানায় জানানো হলে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে তারা ভেতরে প্রবেশ করে এবং লাশ উদ্ধার করে। তখন কলাবাগান থানা পুলিশ শিশুটির নাম-পরিচয় সনাক্ত করতে পারেনি।

ভবনের নিরাপত্তা প্রহরী পুলিশকে জানায়, ওই ফ্ল্যাটে শিশুটি গৃহকর্মীর কাজ করত। প্রতিবেশীদের কয়েকজন জানান, হত্যার পর শিশুটির লাশ ফ্রিজে রাখা হয়েছিল। ফ্রিজ থেকে লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সময় কলাবাগান থানা পুলিশ একটা হত্যা মামলা দায়ের করেন ।

এই বিষয়ে ডিএমপি কলাবাগান থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম এর কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের জানান,গৃহকর্মী হেনা কে হত্যা করে আসামী সাথী পারভিন পালিয়ে যায়, প্রযুক্তির সহযোগিতায় কলাবাগান থানার একটি চৌকস ট্রিম এজেহার নামীয় আসামী সাথী পারভিন ডলি(৪০)কে অদ্য ২ সেপ্টেম্বর ২৩ ইং যশোর কোতোয়ালি থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান তিনি।আগামীকাল দুপুর ১২ টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানাবেন রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন।