ঢাকা ০২:৪০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বরিশালের দুটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ প্রতীক পেয়েই প্রচারনায় ২১ প্রার্থী! ডিএমপি কোতয়ালী থানার উদ্যোগে পথচারী’দের মাঝে সুপেয় পানি ও স্যালাইন বিতরন ডিএমপি ডেমরা থানার উদ্যোগে পথচারী’দের মাঝে সুপেয় পানি ও স্যালাইন বিতরন গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি আব্দুল মতিন জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত চাঞ্চল্যকর শিশু সুবর্ণা গণধর্ষণসহ হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করল পিবিআই তীব্র গরমে ডিএমপি সবুজবাগ থানার উদ্যোগে পথচারী’দের মাঝে সুপেয় পানি ও স্যালাইন বিতরন ইপিজেড থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে আইন শৃঙ্খলা ও কিশোর গ্যাং প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত প্রচণ্ড দাবদাহে পথচারীদের মাঝে হাজারীবাগ থানা পুলিশের উদ্দ্যোগে বিশুদ্ধ পানি বিতরন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল বকুল ও চন্দনে ‘গানেরও বন্ধনে’ বাকেরগঞ্জে ১১ কোটি টাকা ব্যায়ে মডেল মসজিদ নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ!

গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম

  • আপডেট সময় : ০৯:২৯:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ২১৫১ বার পড়া হয়েছে

মো.সাহেদ আহমেদ
গোসাইরহাট(শরীয়তপুর):- আগামী স্থানীয় সরকার নির্বাচনে শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলার কৃতী সন্তান গন প্রাজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কতৃক স্মার্ট বাংলাদেশ উদ্ধোগতা পুরুষ্কার প্রাপ্ত জাতীয় যুব কাউন্সিল এর সভাপতি এবং ই-লার্নিং এন্ড আর্নিং লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদ আলম এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে এলাকায় প্রচারনা করে যাচ্ছেন।

এবারের নির্বাচনে দলীয়ভাবে মনোনয়ন না দেয়ার সিদ্ধান্তের কারনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য জোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন উপজেলার সম্ভাব্য প্রার্থী মাসুদ আলম। ইতোমধ্যে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে প্রার্থীদের পরিচয় তুলে ধরছেন এবং প্রার্থীরাও ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় করে প্রার্থী হওয়ার কথা জানিয়ে দোয়া চাইছেন।

মাসুদ আলম তার সমর্থকদের নিয়ে গনসংযোগ নিয়ে হাট বাজারে গিয়ে প্রার্থীতা জানান দিয়ে ভোটারদের সাথে সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করছেন। তারা এলাকার ধর্মীয়, সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডে- অংশগ্রহণ করে ভোটারদের কাছে টানার চেষ্টা করছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীদের আগাম প্রচারে সরব হয়ে উঠেছে ভোটের মাঠ। অনেক সময় আবার ভোটারদের সঙ্গে কুশল বিনিময়, উঠান বৈঠক ও কর্মী সমাবেশ শুরু করছেন। সামাজিক নানা ধরনের অনুষ্ঠানে হাজির হচ্ছেন।

তফসিল ঘোষণা না হলেও গোসাইরহাট উপজেলার পৌরসভা সহ সব ইউনিয়নে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পার্কে ভোটারদের মতামত জানতে চাইলে তারা বলছেন, এবার নির্বাচনে জনবান্ধব এবং এলাকার অসহায় মানুষের সহযোগীতা ও বেকার যুবকদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা সহ স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়েতুলতে মাসুদ আলম কে গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আমরা দেখতে চাই। তবে এবারের নির্বাচন হবে প্রার্থীদের জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের নির্বাচন। কারন দলীয় মনোনয়ন না হলে যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করার ব্যাপারে ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে পারবেন।

মাসুদ আলম জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে দেশের যুবসমাজকে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে বেকারত্ব দূর করার মাধ্যমে গোসাইরহাট উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলাই আমার লক্ষ্য।

উল্লেখ্য এবার চার ধাপে উপজেলা পরিষদ ভোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন, যার প্রথমটি হবে আগামী ৪ মে। এরপর ১১ মে দ্বিতীয়, ১৮ মে তৃতীয় ও ২৫ মে চতুর্থ ধাপে উপজেলা পরিষদের অনির্বান অনুষ্ঠিত হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

বরিশালের দুটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ প্রতীক পেয়েই প্রচারনায় ২১ প্রার্থী!

গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম

আপডেট সময় : ০৯:২৯:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মো.সাহেদ আহমেদ
গোসাইরহাট(শরীয়তপুর):- আগামী স্থানীয় সরকার নির্বাচনে শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলার কৃতী সন্তান গন প্রাজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কতৃক স্মার্ট বাংলাদেশ উদ্ধোগতা পুরুষ্কার প্রাপ্ত জাতীয় যুব কাউন্সিল এর সভাপতি এবং ই-লার্নিং এন্ড আর্নিং লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদ আলম এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে এলাকায় প্রচারনা করে যাচ্ছেন।

এবারের নির্বাচনে দলীয়ভাবে মনোনয়ন না দেয়ার সিদ্ধান্তের কারনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে শরীয়তপুর গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য জোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন উপজেলার সম্ভাব্য প্রার্থী মাসুদ আলম। ইতোমধ্যে ভোটারদের আকৃষ্ট করতে প্রার্থীদের পরিচয় তুলে ধরছেন এবং প্রার্থীরাও ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় করে প্রার্থী হওয়ার কথা জানিয়ে দোয়া চাইছেন।

মাসুদ আলম তার সমর্থকদের নিয়ে গনসংযোগ নিয়ে হাট বাজারে গিয়ে প্রার্থীতা জানান দিয়ে ভোটারদের সাথে সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করছেন। তারা এলাকার ধর্মীয়, সামাজিক ও রাজনৈতিক কর্মকান্ডে- অংশগ্রহণ করে ভোটারদের কাছে টানার চেষ্টা করছেন। সম্ভাব্য প্রার্থীদের আগাম প্রচারে সরব হয়ে উঠেছে ভোটের মাঠ। অনেক সময় আবার ভোটারদের সঙ্গে কুশল বিনিময়, উঠান বৈঠক ও কর্মী সমাবেশ শুরু করছেন। সামাজিক নানা ধরনের অনুষ্ঠানে হাজির হচ্ছেন।

তফসিল ঘোষণা না হলেও গোসাইরহাট উপজেলার পৌরসভা সহ সব ইউনিয়নে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে। আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পার্কে ভোটারদের মতামত জানতে চাইলে তারা বলছেন, এবার নির্বাচনে জনবান্ধব এবং এলাকার অসহায় মানুষের সহযোগীতা ও বেকার যুবকদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা সহ স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়েতুলতে মাসুদ আলম কে গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আমরা দেখতে চাই। তবে এবারের নির্বাচন হবে প্রার্থীদের জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের নির্বাচন। কারন দলীয় মনোনয়ন না হলে যোগ্য প্রার্থীকে নির্বাচিত করার ব্যাপারে ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে পারবেন।

মাসুদ আলম জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে দেশের যুবসমাজকে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে বেকারত্ব দূর করার মাধ্যমে গোসাইরহাট উপজেলাকে স্মার্ট উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলাই আমার লক্ষ্য।

উল্লেখ্য এবার চার ধাপে উপজেলা পরিষদ ভোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন, যার প্রথমটি হবে আগামী ৪ মে। এরপর ১১ মে দ্বিতীয়, ১৮ মে তৃতীয় ও ২৫ মে চতুর্থ ধাপে উপজেলা পরিষদের অনির্বান অনুষ্ঠিত হবে।