ঢাকা ১২:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের ববি শাখার নেতৃত্বে ইব্রাহিম-শান্ত প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন যুবলীগ নেতার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী গ্রেফতার! ৪ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি’কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে দাগনভূঁঞা থানা পুলিশ দূর্নীতিমুক্ত রিহ‍্যাব গড়তে চান আলিমুল্লাহ খোকন টিলাগাঁও আজিজুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের তৃতীয় বারের মত সভাপতি নির্বাচিত শামিম আহমদ

চাঞ্চল্যকর ইভটিজিং এর ঘটনাকে কেন্দ্র করে নৃশংসভাবে হত্যা মামলার ৫ আসামী’কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১০

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ১২:৩৪:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ২০২২ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন(র‍্যাব-১০) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে থাকে।

মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর এলাকায় বসবাসকারী ভিকটিম গাজী দিল হোসেন নিরব (১৭), পিতা-মৃত জব্বার আলী বেপারী গত ৮ ফেব্রুয়ারি  ২০২৪ ইং মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানাধীন কামারগাঁও আলহাজ্ব কাজী ফজলুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠানে যায়।

উক্ত অনুষ্ঠানের এক পর্যায় কয়েকজন বখাটে ছেলে অজ্ঞাত একজন ছাত্রীকে ধাক্কা দেয় এবং বিভিন্নভাবে উত্ত্যাক্ত করে। বিষয়টি দেখে ভিকটিম নিরব প্রতিবাদ করলে উক্ত্যাক্তকারী বখাটে ছেলেরা নিরবের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়ায় এবং বিভিন্ন প্রকার গালাগালি করতে থাকে।অতঃপর অনুষ্ঠানে উপস্থিত গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ তাৎক্ষনিক বিষয়টি মিমাংসা করে দিলেও উক্ত বিষয় নিয়ে বখাটে ছেলেরা নিরবের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে পরসপর যোগসাজসে নিরবকে উচিৎ শিক্ষা দেওয়ার পরিকল্পনা করে।

অতঃপর বিকাল আনুমানিক ৪ ঘটিকার ঘটিকায় শাহীন, রোমান, রায়হান,জাহিদ ও আবির উক্ত ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে বিরোধের জের ধরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে তাদের সাথে থাকা আরো ২০-২১ জন সহযোগীদের নিয়ে দেশীয় অস্ত্র (দা, চাপাতি ও চাকু) নিয়ে ভিকটিম নিরবের উপর অতর্কিত আক্রমন করে। এ সময় তারা দা, চাপাতি ও চাকু দিয়ে নিরবের মাথা, বুক, পিঠ ও পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথাড়ি কুটিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। নিরব প্রাণ বাঁচাতে দোড়ে পালানোর চেষ্টা করলে উক্ত স্কুলের রাস্তার পাশে একটি খালের মধ্যে পড়ে যায়। অতঃপর আসামীরা নিরবের মৃত্যু নিশ্চত করে ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন নিরবকে গুরুতর আহত ও অজ্ঞান অবস্থায় চিকিৎসার জন্য শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিভিন্ন পরীক্ষ নিরীক্ষ করে নিরবকে মৃত ঘোষনা করেন।   

উক্ত ঘটনায় ভিকটিম নিরবের মা মোসাঃ দিলারা নিপা আক্তার (৪০) বাদি হয়ে মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানায় চাঞ্চল্যকর নিরব হত্যাকান্ডের সাথে সরাসরি জড়িত শাহীন, রোমান, রায়হান, জাহিদ ও আবিরসহ ১৯ জন ও অজ্ঞাতনামা আরো ৬/৭ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং-১১/৪২, তারিখ-১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ইং ধারাঃ ৩০২/৩৪ দণ্ড বিধি। ইতোমধ্যে ঘটনাটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে। ঘটনাটি জানতে পেরে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে।

এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিঃ তারিখ বিকালে র‌্যাব-১০ এর উক্ত আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চাঞ্চল্যকর ইভটিজিং এর ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিরব’কে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় মামলা রুজুর ০৬ ঘণ্টার মধ্যে হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িত ৫ জন আসামীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের নাম  মোঃ শাহীন সিকদার (১৬)মোঃ রোমান মৃধা (১৭)মোঃ রায়হান (১৭)মোঃ জাহিদ (১৭)মোঃ আবির (১৭)বলে জানা যায়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীরা উক্ত হত্যাকাণ্ডে তাদের সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের ববি শাখার নেতৃত্বে ইব্রাহিম-শান্ত

চাঞ্চল্যকর ইভটিজিং এর ঘটনাকে কেন্দ্র করে নৃশংসভাবে হত্যা মামলার ৫ আসামী’কে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব-১০

আপডেট সময় : ১২:৩৪:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন(র‍্যাব-১০) প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকেই দেশের সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সমুন্নত রাখার লক্ষ্যে সব ধরণের অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে থাকে।

মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর এলাকায় বসবাসকারী ভিকটিম গাজী দিল হোসেন নিরব (১৭), পিতা-মৃত জব্বার আলী বেপারী গত ৮ ফেব্রুয়ারি  ২০২৪ ইং মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানাধীন কামারগাঁও আলহাজ্ব কাজী ফজলুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠানে যায়।

উক্ত অনুষ্ঠানের এক পর্যায় কয়েকজন বখাটে ছেলে অজ্ঞাত একজন ছাত্রীকে ধাক্কা দেয় এবং বিভিন্নভাবে উত্ত্যাক্ত করে। বিষয়টি দেখে ভিকটিম নিরব প্রতিবাদ করলে উক্ত্যাক্তকারী বখাটে ছেলেরা নিরবের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়ায় এবং বিভিন্ন প্রকার গালাগালি করতে থাকে।অতঃপর অনুষ্ঠানে উপস্থিত গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ তাৎক্ষনিক বিষয়টি মিমাংসা করে দিলেও উক্ত বিষয় নিয়ে বখাটে ছেলেরা নিরবের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে পরসপর যোগসাজসে নিরবকে উচিৎ শিক্ষা দেওয়ার পরিকল্পনা করে।

অতঃপর বিকাল আনুমানিক ৪ ঘটিকার ঘটিকায় শাহীন, রোমান, রায়হান,জাহিদ ও আবির উক্ত ইভটিজিংকে কেন্দ্র করে বিরোধের জের ধরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে তাদের সাথে থাকা আরো ২০-২১ জন সহযোগীদের নিয়ে দেশীয় অস্ত্র (দা, চাপাতি ও চাকু) নিয়ে ভিকটিম নিরবের উপর অতর্কিত আক্রমন করে। এ সময় তারা দা, চাপাতি ও চাকু দিয়ে নিরবের মাথা, বুক, পিঠ ও পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথাড়ি কুটিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। নিরব প্রাণ বাঁচাতে দোড়ে পালানোর চেষ্টা করলে উক্ত স্কুলের রাস্তার পাশে একটি খালের মধ্যে পড়ে যায়। অতঃপর আসামীরা নিরবের মৃত্যু নিশ্চত করে ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন নিরবকে গুরুতর আহত ও অজ্ঞান অবস্থায় চিকিৎসার জন্য শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিভিন্ন পরীক্ষ নিরীক্ষ করে নিরবকে মৃত ঘোষনা করেন।   

উক্ত ঘটনায় ভিকটিম নিরবের মা মোসাঃ দিলারা নিপা আক্তার (৪০) বাদি হয়ে মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানায় চাঞ্চল্যকর নিরব হত্যাকান্ডের সাথে সরাসরি জড়িত শাহীন, রোমান, রায়হান, জাহিদ ও আবিরসহ ১৯ জন ও অজ্ঞাতনামা আরো ৬/৭ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন যার মামলা নং-১১/৪২, তারিখ-১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ইং ধারাঃ ৩০২/৩৪ দণ্ড বিধি। ইতোমধ্যে ঘটনাটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এবং বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে। ঘটনাটি জানতে পেরে র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল চাঞ্চল্যকর এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত আসামীদের গ্রেফতারের লক্ষ্যে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে।

এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিঃ তারিখ বিকালে র‌্যাব-১০ এর উক্ত আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ও তথ্য-প্রযুক্তির সহায়তায় মুন্সিগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানাধীন বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চাঞ্চল্যকর ইভটিজিং এর ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিরব’কে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় মামলা রুজুর ০৬ ঘণ্টার মধ্যে হত্যাকাণ্ডে সরাসরি জড়িত ৫ জন আসামীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের নাম  মোঃ শাহীন সিকদার (১৬)মোঃ রোমান মৃধা (১৭)মোঃ রায়হান (১৭)মোঃ জাহিদ (১৭)মোঃ আবির (১৭)বলে জানা যায়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীরা উক্ত হত্যাকাণ্ডে তাদের সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।গ্রেফতারকৃত আসামীদেরকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।