ঢাকা ১১:২৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রকাশ হলো সুজন-তুলসীর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র “কলেজ গার্ল” গাজীপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে সাংবাদিকের গাছপালা কেটে ক্ষতিসাধন মধুপুরে প্রাইভেটকার ও মাহিন্দ্রার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ আহত ৮ শিল্পী সমিতির সদস্যদের জন্য ১০ লাখ টাকা অনুদান দিলেন ডিপজল জুড়ী নদীর বাঁধে ভাঙন ভাঙনকবলিত স্থান পরিদর্শনে যান উপজেলা চেয়ারম্যান কিশোর রায় চৌধুরী মনি বিএনপি নেতার বাড়িতে আওয়ামী লীগ নেতাদের গোপন বৈঠক, গৌরনদীতে ব্যাপক তোলপাড় ! দেশীয় তৈরী বন্ধুকসহ একাদিক মামলার আসামী নিজাম উদ্দিন’কে গ্রেফতার করেছে দাগনভূঁঞা থানা পুলিশ গরিব ও অসহায় মানুষদের লাখপতি করাই যার নেশা ! বর্ণাঢ্য আয়োজনে কলসকাঠী তে ঈদ পুনর্মিলনী উদযাপিত দেশ ছেড়েছেন সাবেক ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া!

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ যুবকের বিরুদ্ধে মামলা

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ০৪:০৬:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ২১৬৮ বার পড়া হয়েছে

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :-কক্সবাজারে নিয়ে গিয়ে এক নারীকে হোটেলে রেখে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে উঠেছে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার কামরুজ্জামান বাহাদুর নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় আজ বুধবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছে ভুক্তভোগী নারীর চাচা। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসিকে এজাহার হিসেবে গ্রহণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাডভোকেট আবেদুর রহমান।

মামলার আসামী কামরুজ্জামান বাহাদুর উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ দুয়ারী জিয়াবাড়ী গ্রামের আমিরুল হকের ছেলে।

মামলার বরাত দিয়ে বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাডভোকেট আবেদুর রহমান জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে ভুক্তভোগী ওই নারী (১৯)কে প্রথমে ঢাকায় এবং পরে কক্সবাজারে নিয়ে গিয়ে একাধিবার দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। কক্সবাজার থেকে বাড়ীতে ফেরার পর ভুক্তভোগী ওই নারী যুবকের বাড়ীতে অবস্থান নিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিলে প্রত্যাখান করে কামরুজ্জামান বাহাদুর। স্ত্রী ও মায়ের দ্বারা মারপিট করে তার বাড়ীতে বের করে দেওয়া হয় ভুক্তভোগী নারীকে। পরে তাকে উদ্ধার করে গতকাল মঙ্গলবার ভর্তি করা হয় বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ভুক্তভোগী ওই নারী।

এ ঘটনায় কামরুজ্জামান বাহাদুরের বিচারের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী নারী ও তার স্বজনরা।

তবে ধর্ষণ ও মারপিটের অভিযোগ অস্বীকার করছেন কামরুজ্জামান বাহাদুর, তার স্ত্রী ও বাহাদুরের মা। কামরুজ্জামান বাহাদুর মুঠোফোনে আজকের পত্রিকাকে জানান, এলাকায় সফল ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত তিনি। তার গাড়ী-বাড়ী এবং টাকা পয়সা রয়েছে। এসব থেকে কিছু পেতে স্থানীয় কয়েকজন রং লাগিয়ে ঘটনা বানাচ্ছেন।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কামরুজ্জামান বাহাদুরের বাড়ীতে গেলে তার মা ও স্ত্রী জানান, তাকে মারধর করা হয়নি। ভুক্তভোগী ওই নারী রাতে এসেছিলে। কিছুক্ষণ পরেই স্থানীয়রা এসে তাকে নিয়ে গেছে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি খায়রুল আনাম বলেন, আদালত থেকে নির্দেশনা হাতে পৌছায়নি। পৌছালে নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রকাশ হলো সুজন-তুলসীর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র “কলেজ গার্ল”

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ যুবকের বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট সময় : ০৪:০৬:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :-কক্সবাজারে নিয়ে গিয়ে এক নারীকে হোটেলে রেখে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে উঠেছে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার কামরুজ্জামান বাহাদুর নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় আজ বুধবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছে ভুক্তভোগী নারীর চাচা। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসিকে এজাহার হিসেবে গ্রহণ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাডভোকেট আবেদুর রহমান।

মামলার আসামী কামরুজ্জামান বাহাদুর উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ দুয়ারী জিয়াবাড়ী গ্রামের আমিরুল হকের ছেলে।

মামলার বরাত দিয়ে বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাডভোকেট আবেদুর রহমান জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে ভুক্তভোগী ওই নারী (১৯)কে প্রথমে ঢাকায় এবং পরে কক্সবাজারে নিয়ে গিয়ে একাধিবার দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। কক্সবাজার থেকে বাড়ীতে ফেরার পর ভুক্তভোগী ওই নারী যুবকের বাড়ীতে অবস্থান নিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিলে প্রত্যাখান করে কামরুজ্জামান বাহাদুর। স্ত্রী ও মায়ের দ্বারা মারপিট করে তার বাড়ীতে বের করে দেওয়া হয় ভুক্তভোগী নারীকে। পরে তাকে উদ্ধার করে গতকাল মঙ্গলবার ভর্তি করা হয় বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ভুক্তভোগী ওই নারী।

এ ঘটনায় কামরুজ্জামান বাহাদুরের বিচারের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী নারী ও তার স্বজনরা।

তবে ধর্ষণ ও মারপিটের অভিযোগ অস্বীকার করছেন কামরুজ্জামান বাহাদুর, তার স্ত্রী ও বাহাদুরের মা। কামরুজ্জামান বাহাদুর মুঠোফোনে আজকের পত্রিকাকে জানান, এলাকায় সফল ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত তিনি। তার গাড়ী-বাড়ী এবং টাকা পয়সা রয়েছে। এসব থেকে কিছু পেতে স্থানীয় কয়েকজন রং লাগিয়ে ঘটনা বানাচ্ছেন।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কামরুজ্জামান বাহাদুরের বাড়ীতে গেলে তার মা ও স্ত্রী জানান, তাকে মারধর করা হয়নি। ভুক্তভোগী ওই নারী রাতে এসেছিলে। কিছুক্ষণ পরেই স্থানীয়রা এসে তাকে নিয়ে গেছে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি খায়রুল আনাম বলেন, আদালত থেকে নির্দেশনা হাতে পৌছায়নি। পৌছালে নির্দেশনা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।