ঢাকা ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
চট্টগ্রামে পাহাড়িদের বৈসাবি উৎসব উচ্চ ডিগ্রি অর্জনে যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনা করছেন এম ইউ অ্যান্থনি হরিপুরে প্রকৃতি কে সভামন্ডিত করেছে হলুদ বরণের সোনালু ফুল নির্বাচনী আচারন লঙ্ঘন করায় চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থককে জরিমানা ডিজিটাল কারেন্সির মাধ্যমে বিদেশে অর্থ পাচার রোধে উচ্চতর প্রশিক্ষণের বিকল্প নাই- সিআইডি প্রধান রাজশাহীতে বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস পালিত বাড্ডায় শিশু অপহরণ ও ক্রয় বিক্রয় চক্রের মূলহোতা গ্রেফতার, শিশু মরিয়ম উদ্ধার ৮ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের ভিডিও নিয়ে চিন্তিত সীমা সরকার দেশজুড়ে তোলপাড়! বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি জেলা কমিটি অনুমোদন সভাপতি কামরুজ্জামান সম্পাদক বাদশা এটিএন বাংলার চায়ের চুমুকে সংগঠক ও বিনোদন সাংবাদিক আবুল হোসেন মজুমদার

প্রিয় শিক্ষাঙ্গন- পকম্বা ফাড়াবাড়ি দারুস সুন্নাহ্ ক্বওমী মাদরাসা

  • আপডেট সময় : ০৪:১০:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ অক্টোবর ২০২৩
  • ২১৬৫ বার পড়া হয়েছে

সিরাজুল ইসলাম
জেলা প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও:- রানীশংকৈল উপজেলার ৪ নং লেহেম্বা ইউনিয়নে অবস্থিত, পকম্বা-ফাড়াবাড়ি দারুস সুন্নাহ্ ক্বওমী মাদরাসা। মাদরাসাটি স্থাপিত হয় ২০১৮ সালে, এবং মাদরাসাটি প্রতিষ্ঠাতা করেন মরহুম মাওলানা আব্দুল মালেক। অত্র মাদরাসাটি প্রায় ১ বিঘা জমি জুড়ে অবস্থিত।

মাদরাসার মধ্যে শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে লাইব্রেরি। লাইব্রেরির মধ্যে রয়েছে ইসলামিক সব ধরনের বই-পুস্তক, যেমন- কুরআন শরীফ, হাদিস, তাফসির সহ নানা রকম বই। মাদরাসাটি তানজিমুল কুরআন বাংলাদেশ, বোর্ড অধিভুক্ত। এতিম-অসহায় শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে ফ্রি থাকা খাওয়া ও পড়াশোনা।

ইতিমধ্যে, মাদরাসাটি শিক্ষা প্রদানে এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি ও সুনাম লাভ করেছে। বর্তমানে অত্র মাদরাসাতে শতাধিক এতিম ও অসহায় শিক্ষার্থীরা অধ্যয়ন করছে। মাদরাসাটির মুহতামিম হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অত্র মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতার বড় ছেলে হাফেজ ক্বারী হারুন অর রশিদ। তিনি অতি সুনামের সহিত মাদরাসার মুহতামিমের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

মাদরাসাটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, মোঃ মাইনুল চৌধুরী (দাতা সদস্য)। দাতা সদস্য হিসেবে রয়েছেন – আলহাজ্ব মরহুম কেরামত আলী সাহেব, মোঃ সামসুদ্দিন সরকার, মরহুম আইনুল মহুরী, মোঃ জাহিরুল ইসলাম (মাষ্টার), মোঃ মাইনুল হক (মাষ্টার), নোঃ আবুল খায়ের, মোঃ মোকসেদ আলী (মাষ্টার)।

উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য হিসেবে রয়েছেন- জনাব হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (সংসদ সদস্য, ঠাকুরগাঁও- ০৩), অধ্যক্ষ সইদুল হক, সভাপতি – রানীশংকৈল উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান। আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান, মেয়র – রানীশংকৈল পৌরসভা। জনাব আবুল কালাম, চেয়ারম্যান – ৪ নং লেহেম্বা ইউনিয়ন।মাওলানা মোজাম্মেল হক (গোগর)।

প্রধান পৃষ্ঠপোষকতার দায়িত্ব পালন করছেন-আলহাজ্ব মাওলানা আব্দুল জলিল, মাওলানা মজিবর রহমান, আলহাজ্ব আব্বাস আলী, মোঃ মকবুল আলী, মরহুম খলিলুর রহমান, আলহাজ্ব জইনুল ইসলাম (সামাডাঙ্গি), মোঃ মোশাররফ হোসেন (মুসা), মোঃ নজির উদ্দিন (মেম্বার), মোঃ সিরাজুল ইসলাম (মেম্বার), আলহাজ্ব বকুল ইসলাম, মোঃ হুমায়ুন কবির টুটুল, মোঃ মফিজ উদ্দিন, মোঃ তোফাজ্জুল ইসলাম, মোঃ মমিনুল ইসলাম, মোঃ রুবেল হক (মাষ্টার), মোঃ রবিউল ইসলাম, মোঃ আতাউর রহমান, মোঃ লুৎফর ইসলাম, মোঃ আলম (সেনা সদস্য), মোঃ মনতাজ আলী (মাষ্টার)।

অত্র মাদরাসার শিক্ষকমন্ডলী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন- হাফেজ জাহিদ, মাওলানা হাবিবুল্লাহ, মোঃ ওমর ফারুক।

অত্র মাদরাসার মুহতামিম হাফেজ ক্বারী হারুন অর রশিদ শিক্ষার্থী ও সুশীল সমাজের প্রাণপ্রিয় মুসলিম ভাইদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের মধ্যে সর্বোওম ওই ব্যক্তি যিনি কুরআন মাজিদ শিখে এবং অপরকে শিক্ষা দেন (মিশকাত শরীফ)। দ্বীনি এলেম শিক্ষা করা প্রত্যেক মুসলমানের উপর ফরজ (মিশকাত শরীফ)। মুহাম্মদ ইবন বাশশার (র), আয়িশা (রা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন আমি আরয করলাম, ইয়া রাসুলুল্লাহ! আমার দু’জন প্রতিবেশী আছে। এ দু’জনের কাকে আমি হাদিয়া দিব? তিনি ইরশাদ করেন, এ দুয়ের মাঝে যার দরজা অধিক নিকটবর্তী (বুখারী শরীফ ৪র্থ খন্ড – ২৪২৩)। পরিশেষে তিনি বলেন, আমি অতি নিষ্ঠার সাথে আমার দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি, আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন যাতে মাদরাটি কে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি আপনাদের সকলের সহযোগিতায় এবং তিনি কৃতঙ্গতা প্রকাশ করেন যারা মাদরাসাটি প্রতিষ্ঠাকাল থেকে এখন পর্যন্ত মাদরাসার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে কাজ করে যাচ্ছেন।

ট্যাগস :

চট্টগ্রামে পাহাড়িদের বৈসাবি উৎসব

প্রিয় শিক্ষাঙ্গন- পকম্বা ফাড়াবাড়ি দারুস সুন্নাহ্ ক্বওমী মাদরাসা

আপডেট সময় : ০৪:১০:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১ অক্টোবর ২০২৩

সিরাজুল ইসলাম
জেলা প্রতিনিধি, ঠাকুরগাঁও:- রানীশংকৈল উপজেলার ৪ নং লেহেম্বা ইউনিয়নে অবস্থিত, পকম্বা-ফাড়াবাড়ি দারুস সুন্নাহ্ ক্বওমী মাদরাসা। মাদরাসাটি স্থাপিত হয় ২০১৮ সালে, এবং মাদরাসাটি প্রতিষ্ঠাতা করেন মরহুম মাওলানা আব্দুল মালেক। অত্র মাদরাসাটি প্রায় ১ বিঘা জমি জুড়ে অবস্থিত।

মাদরাসার মধ্যে শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে লাইব্রেরি। লাইব্রেরির মধ্যে রয়েছে ইসলামিক সব ধরনের বই-পুস্তক, যেমন- কুরআন শরীফ, হাদিস, তাফসির সহ নানা রকম বই। মাদরাসাটি তানজিমুল কুরআন বাংলাদেশ, বোর্ড অধিভুক্ত। এতিম-অসহায় শিক্ষার্থীদের জন্য রয়েছে ফ্রি থাকা খাওয়া ও পড়াশোনা।

ইতিমধ্যে, মাদরাসাটি শিক্ষা প্রদানে এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি ও সুনাম লাভ করেছে। বর্তমানে অত্র মাদরাসাতে শতাধিক এতিম ও অসহায় শিক্ষার্থীরা অধ্যয়ন করছে। মাদরাসাটির মুহতামিম হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অত্র মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতার বড় ছেলে হাফেজ ক্বারী হারুন অর রশিদ। তিনি অতি সুনামের সহিত মাদরাসার মুহতামিমের দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

মাদরাসাটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন, মোঃ মাইনুল চৌধুরী (দাতা সদস্য)। দাতা সদস্য হিসেবে রয়েছেন – আলহাজ্ব মরহুম কেরামত আলী সাহেব, মোঃ সামসুদ্দিন সরকার, মরহুম আইনুল মহুরী, মোঃ জাহিরুল ইসলাম (মাষ্টার), মোঃ মাইনুল হক (মাষ্টার), নোঃ আবুল খায়ের, মোঃ মোকসেদ আলী (মাষ্টার)।

উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য হিসেবে রয়েছেন- জনাব হাফিজ উদ্দিন আহমেদ (সংসদ সদস্য, ঠাকুরগাঁও- ০৩), অধ্যক্ষ সইদুল হক, সভাপতি – রানীশংকৈল উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান। আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান, মেয়র – রানীশংকৈল পৌরসভা। জনাব আবুল কালাম, চেয়ারম্যান – ৪ নং লেহেম্বা ইউনিয়ন।মাওলানা মোজাম্মেল হক (গোগর)।

প্রধান পৃষ্ঠপোষকতার দায়িত্ব পালন করছেন-আলহাজ্ব মাওলানা আব্দুল জলিল, মাওলানা মজিবর রহমান, আলহাজ্ব আব্বাস আলী, মোঃ মকবুল আলী, মরহুম খলিলুর রহমান, আলহাজ্ব জইনুল ইসলাম (সামাডাঙ্গি), মোঃ মোশাররফ হোসেন (মুসা), মোঃ নজির উদ্দিন (মেম্বার), মোঃ সিরাজুল ইসলাম (মেম্বার), আলহাজ্ব বকুল ইসলাম, মোঃ হুমায়ুন কবির টুটুল, মোঃ মফিজ উদ্দিন, মোঃ তোফাজ্জুল ইসলাম, মোঃ মমিনুল ইসলাম, মোঃ রুবেল হক (মাষ্টার), মোঃ রবিউল ইসলাম, মোঃ আতাউর রহমান, মোঃ লুৎফর ইসলাম, মোঃ আলম (সেনা সদস্য), মোঃ মনতাজ আলী (মাষ্টার)।

অত্র মাদরাসার শিক্ষকমন্ডলী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন- হাফেজ জাহিদ, মাওলানা হাবিবুল্লাহ, মোঃ ওমর ফারুক।

অত্র মাদরাসার মুহতামিম হাফেজ ক্বারী হারুন অর রশিদ শিক্ষার্থী ও সুশীল সমাজের প্রাণপ্রিয় মুসলিম ভাইদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমাদের মধ্যে সর্বোওম ওই ব্যক্তি যিনি কুরআন মাজিদ শিখে এবং অপরকে শিক্ষা দেন (মিশকাত শরীফ)। দ্বীনি এলেম শিক্ষা করা প্রত্যেক মুসলমানের উপর ফরজ (মিশকাত শরীফ)। মুহাম্মদ ইবন বাশশার (র), আয়িশা (রা) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন আমি আরয করলাম, ইয়া রাসুলুল্লাহ! আমার দু’জন প্রতিবেশী আছে। এ দু’জনের কাকে আমি হাদিয়া দিব? তিনি ইরশাদ করেন, এ দুয়ের মাঝে যার দরজা অধিক নিকটবর্তী (বুখারী শরীফ ৪র্থ খন্ড – ২৪২৩)। পরিশেষে তিনি বলেন, আমি অতি নিষ্ঠার সাথে আমার দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি, আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন যাতে মাদরাটি কে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি আপনাদের সকলের সহযোগিতায় এবং তিনি কৃতঙ্গতা প্রকাশ করেন যারা মাদরাসাটি প্রতিষ্ঠাকাল থেকে এখন পর্যন্ত মাদরাসার উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে কাজ করে যাচ্ছেন।