ঢাকা ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন যুবলীগ নেতার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী গ্রেফতার! ৪ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি’কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে দাগনভূঁঞা থানা পুলিশ দূর্নীতিমুক্ত রিহ‍্যাব গড়তে চান আলিমুল্লাহ খোকন টিলাগাঁও আজিজুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের তৃতীয় বারের মত সভাপতি নির্বাচিত শামিম আহমদ ‘কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এর ‘কিশোর গ্যাং-কীভাবে এলো, কীভাবে রুখবো’দুইটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

বরিশাল -৬ আসনে উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জে জয় বাংলা হাফিজ মল্লিকের জয় জয়জয়কার!

  • আপডেট সময় : ১০:৩৩:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৮ অক্টোবর ২০২৩
  • ২১৬৮ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :- জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদেরকে দিয়েছে একটি স্বাধীন দেশ, আর বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী হাসিনা আমাদেরকে দিয়েছে একটি উন্নয়নশীল বাংলাদেশ। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কখনো জনগণকে মিথ্যা আশ্বাস দেন না, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অঙ্গীকার ছিল ডিজিটেল বাংলাদেশ গড়ার, আজ তা বাস্তবায়ন হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অঙ্গীকার করেছেন আগামীতে বাংলাদেশ হবে স্মার্ট বাংলাদেশ, তাই স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে স্মার্ট মানুষের কোন বিকল্প নেই।বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে স্মার্ট মানুষের কোন বিকল্প নেই। সেবা ও উন্নতির দক্ষ রুপকার, উন্নয়নে উদ্ভাবনে স্থানীয় সরকার’ গ্ৰাম হবে শহর, এ প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে বাকেরগঞ্জ উপজেলার ইউনিয়ন ১৪ টি ইউনিয়ন পরিষদকে ঢেলে সাজিয়ে করা হবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত স্মার্ট ইউনিয়ন পরিষদ বলে জানিয়েছেন,বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সম্মানিত সদস্য ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট এর আজীবন সদস্য আলহাজ্ব মেজর জেনারেল অবঃ আব্দুল হাফিজ মল্লিক। তিনি আরো জানান,আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন।কেন্দ্রীয় এই নেতা বলেন,বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে একটি উন্নয়নের মহাসড়কে দেখালেও বর্তমানে বাকেরগঞ্জ-৬ আসনের আওয়ামী লীগের কোন দলীয় সংসদ সদস্য না থাকার কারণে উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়ন সহ একটি পৌরসভায় আশানুরূপভাবে কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি বলে জানান।বিশ্ব মানচিত্রে বাংলাদেশে যখন উন্নয়নের জোয়ার বইলেও বাকেরগঞ্জ-৬ আসনটিতে আশানুরুপ কোন উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি। গত ১৪ বছর ৩ মাস যাবৎ উন্নায়ন থেকে সবচেয়ে পিছিয়ে ছিলো এ আসনটি। এলাকার উন্নায়নে গত ১৪বছর ৩ মাস বরিশাল-৬ উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জ আসনে আওয়ামী লীগের কোন দলীয় এমপি না থাকার কারণে এই আসনটিতে আশানুরুপ কোন ভুমিকা না রাখায় বাকেরগঞ্জ উপজেলার মানুষ উন্নায়ন বঞ্চিত, অবহেলিত ও নির্যাতিত হয় বলে আভিযোগ খোদ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের। সাবেক সংসদ মরহুম আলহাজ্জ সৈয়দ মাসুদ রেজার একান্ত প্রচেষ্ঠায় ১৯৯৬-২০০১ তৎকালীন সময়ে বাকেরগঞ্জ উপজেলায় উন্নায়নের জোয়ার বইলেও ২০০৯ সালে ক্ষমতার আসার পর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ১৪ বছর ৩ মাস ক্ষমতায় থাকলেও এখানে আওয়ামী লীগের এমপি না থাকার কারণে এতে করে সংসদীয় এলাকার মানুষের মাঝে চরম ক্ষোভ আর হতাশা বিরাজ করছে। এছাড়া প্রকল্পের অভাবে নেতাকর্মীরা কোনো কাজের টেন্ডার পাননি। এ ক্ষেত্রে বর্তমান সংসদ নাসরীন জাহান রত্নার উদ্যেগের অভাব ও উন্নায়নের বিষয়ে মনযোগী না হওয়াকেই দায়ী করছেন স্থানীয় নেতাকর্মিরা। বিষয়টিককে মোক্ষম অস্ত্র হিসেবে ব্যাবহার করে আগামি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাকেরগঞ্জ উপজেলার সর্বাস্তরের জনগন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্টের আজীবন সদস্য আলহাজ্ব মেজর জেনারেল অবঃ আবদুল হাফিজ মল্লিককে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে চাইছেন। হাফিজ মল্লীক আওয়ামী লীগের সকল প্রার্থীর চেয়ে সততা, আর্দশতা, বিনয়ীতা, দক্ষতা ও যোগ্যতার মাপকাঠিতে প্রধান মন্ত্রীর নিকট এগিয়ে আছেন এবং সরেজমিনেও জানাযায় সবার জনপ্রিতার সবার শীর্ষে রেয়েছেন এই কেন্দ্রীয় নেতা।বর্ষিয়ান এক কেন্দ্রীয় নেতা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার একান্ত আস্থাভাজন ও বিশ্বস্ত হওয়ার কারণে ২০০৯ সালে থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে বারবার মনোনয়ন পেলেও মহাজোট ও জাতীয় পার্টির কারণে মনোনয়ন থেকে ছিটকে পড়েন আওয়ামী লীগের এই প্রভাবশালী নেতা। তবে আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সবকিছু র্নিভর করছে দলীয়র সভানেত্রী শেখ হাসিনার মনোনায়নের উপর। তবে বিগত নির্বাচনের মতো আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেজর জেনারেল অবঃ আব্দুল হাফিজ মল্লিককে দলের মনোনায়ন দিয়ে আবার তা যদি প্রত্যাহার করানো হয় তাহলে দলীয় নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যে দল থেকে পদত্যাগ করার ঘোষনা সহ এমনকি বিকল্পপ্রার্থী হিসেবে দলীয় নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যে বেঁচে নিয়েছেন বলে বিশ্বাসযোগ্য সূত্রে জানায়। মনোনয়ন প্রত্যাশী মেজর জেনারেল অবঃ আঃ হাফিজ মল্লীক গোপলগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের কম্পেলেক্স ভবন করতে গিয়ে বিগত বিএনপি-জামাতের জোট সরকারের আমলে দেয়া মিথ্যা মামলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ১ নং আসামি করে তাকে ২ নং আসামি করেস এবং তাকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠায়। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়মী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মন্ডলী সদস্য ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টেরর আজীবন সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান ছাড়াও আরো অনেক গুরুত্বপূর্ন দায়িত্বে আছেন। দলীও নেতিকর্মিদের ধারনা আগামি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাকে মনোনায়ন দেয়া হলে তিনি বিপুল ভোটে এমপি হবেন এবং এমপি হলে মন্ত্রী হয়ে তিনি কেবল বাকেরগঞ্জ নয়, বৃহত্তর বরিশাল বিভাগের উন্নায়নের জোয়ার তার দ্বারাই সম্ভাব হবে। এমন কি সেই আগা বাকের খানের সৃতি বিজারিত বার আউলিয়াদের পূর্ন ভুমি বাকেরগঞ্জকে জেলা হিসেবে বাস্তবায়ন করবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করে জানান এই কেন্দ্রীয় এই বর্ষিয়ান নেতা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে

বরিশাল -৬ আসনে উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জে জয় বাংলা হাফিজ মল্লিকের জয় জয়জয়কার!

আপডেট সময় : ১০:৩৩:৪৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৮ অক্টোবর ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক :- জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদেরকে দিয়েছে একটি স্বাধীন দেশ, আর বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী হাসিনা আমাদেরকে দিয়েছে একটি উন্নয়নশীল বাংলাদেশ। তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কখনো জনগণকে মিথ্যা আশ্বাস দেন না, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অঙ্গীকার ছিল ডিজিটেল বাংলাদেশ গড়ার, আজ তা বাস্তবায়ন হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অঙ্গীকার করেছেন আগামীতে বাংলাদেশ হবে স্মার্ট বাংলাদেশ, তাই স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে স্মার্ট মানুষের কোন বিকল্প নেই।বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে স্মার্ট মানুষের কোন বিকল্প নেই। সেবা ও উন্নতির দক্ষ রুপকার, উন্নয়নে উদ্ভাবনে স্থানীয় সরকার’ গ্ৰাম হবে শহর, এ প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে বাকেরগঞ্জ উপজেলার ইউনিয়ন ১৪ টি ইউনিয়ন পরিষদকে ঢেলে সাজিয়ে করা হবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত স্মার্ট ইউনিয়ন পরিষদ বলে জানিয়েছেন,বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সম্মানিত সদস্য ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট এর আজীবন সদস্য আলহাজ্ব মেজর জেনারেল অবঃ আব্দুল হাফিজ মল্লিক। তিনি আরো জানান,আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক নির্বাচন।কেন্দ্রীয় এই নেতা বলেন,বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে একটি উন্নয়নের মহাসড়কে দেখালেও বর্তমানে বাকেরগঞ্জ-৬ আসনের আওয়ামী লীগের কোন দলীয় সংসদ সদস্য না থাকার কারণে উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়ন সহ একটি পৌরসভায় আশানুরূপভাবে কোন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি বলে জানান।বিশ্ব মানচিত্রে বাংলাদেশে যখন উন্নয়নের জোয়ার বইলেও বাকেরগঞ্জ-৬ আসনটিতে আশানুরুপ কোন উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি। গত ১৪ বছর ৩ মাস যাবৎ উন্নায়ন থেকে সবচেয়ে পিছিয়ে ছিলো এ আসনটি। এলাকার উন্নায়নে গত ১৪বছর ৩ মাস বরিশাল-৬ উন্নয়ন বঞ্চিত বাকেরগঞ্জ আসনে আওয়ামী লীগের কোন দলীয় এমপি না থাকার কারণে এই আসনটিতে আশানুরুপ কোন ভুমিকা না রাখায় বাকেরগঞ্জ উপজেলার মানুষ উন্নায়ন বঞ্চিত, অবহেলিত ও নির্যাতিত হয় বলে আভিযোগ খোদ স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের। সাবেক সংসদ মরহুম আলহাজ্জ সৈয়দ মাসুদ রেজার একান্ত প্রচেষ্ঠায় ১৯৯৬-২০০১ তৎকালীন সময়ে বাকেরগঞ্জ উপজেলায় উন্নায়নের জোয়ার বইলেও ২০০৯ সালে ক্ষমতার আসার পর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ১৪ বছর ৩ মাস ক্ষমতায় থাকলেও এখানে আওয়ামী লীগের এমপি না থাকার কারণে এতে করে সংসদীয় এলাকার মানুষের মাঝে চরম ক্ষোভ আর হতাশা বিরাজ করছে। এছাড়া প্রকল্পের অভাবে নেতাকর্মীরা কোনো কাজের টেন্ডার পাননি। এ ক্ষেত্রে বর্তমান সংসদ নাসরীন জাহান রত্নার উদ্যেগের অভাব ও উন্নায়নের বিষয়ে মনযোগী না হওয়াকেই দায়ী করছেন স্থানীয় নেতাকর্মিরা। বিষয়টিককে মোক্ষম অস্ত্র হিসেবে ব্যাবহার করে আগামি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাকেরগঞ্জ উপজেলার সর্বাস্তরের জনগন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেমোরিয়াল ট্রাস্টের আজীবন সদস্য আলহাজ্ব মেজর জেনারেল অবঃ আবদুল হাফিজ মল্লিককে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে চাইছেন। হাফিজ মল্লীক আওয়ামী লীগের সকল প্রার্থীর চেয়ে সততা, আর্দশতা, বিনয়ীতা, দক্ষতা ও যোগ্যতার মাপকাঠিতে প্রধান মন্ত্রীর নিকট এগিয়ে আছেন এবং সরেজমিনেও জানাযায় সবার জনপ্রিতার সবার শীর্ষে রেয়েছেন এই কেন্দ্রীয় নেতা।বর্ষিয়ান এক কেন্দ্রীয় নেতা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার একান্ত আস্থাভাজন ও বিশ্বস্ত হওয়ার কারণে ২০০৯ সালে থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে বারবার মনোনয়ন পেলেও মহাজোট ও জাতীয় পার্টির কারণে মনোনয়ন থেকে ছিটকে পড়েন আওয়ামী লীগের এই প্রভাবশালী নেতা। তবে আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সবকিছু র্নিভর করছে দলীয়র সভানেত্রী শেখ হাসিনার মনোনায়নের উপর। তবে বিগত নির্বাচনের মতো আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেজর জেনারেল অবঃ আব্দুল হাফিজ মল্লিককে দলের মনোনায়ন দিয়ে আবার তা যদি প্রত্যাহার করানো হয় তাহলে দলীয় নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যে দল থেকে পদত্যাগ করার ঘোষনা সহ এমনকি বিকল্পপ্রার্থী হিসেবে দলীয় নেতাকর্মীরা ইতিমধ্যে বেঁচে নিয়েছেন বলে বিশ্বাসযোগ্য সূত্রে জানায়। মনোনয়ন প্রত্যাশী মেজর জেনারেল অবঃ আঃ হাফিজ মল্লীক গোপলগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের কম্পেলেক্স ভবন করতে গিয়ে বিগত বিএনপি-জামাতের জোট সরকারের আমলে দেয়া মিথ্যা মামলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ১ নং আসামি করে তাকে ২ নং আসামি করেস এবং তাকে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠায়। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়মী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মন্ডলী সদস্য ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল ট্রাস্টেরর আজীবন সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান ছাড়াও আরো অনেক গুরুত্বপূর্ন দায়িত্বে আছেন। দলীও নেতিকর্মিদের ধারনা আগামি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাকে মনোনায়ন দেয়া হলে তিনি বিপুল ভোটে এমপি হবেন এবং এমপি হলে মন্ত্রী হয়ে তিনি কেবল বাকেরগঞ্জ নয়, বৃহত্তর বরিশাল বিভাগের উন্নায়নের জোয়ার তার দ্বারাই সম্ভাব হবে। এমন কি সেই আগা বাকের খানের সৃতি বিজারিত বার আউলিয়াদের পূর্ন ভুমি বাকেরগঞ্জকে জেলা হিসেবে বাস্তবায়ন করবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করে জানান এই কেন্দ্রীয় এই বর্ষিয়ান নেতা।