ঢাকা ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
জাতীয় সংবাদ পরিষদের সভাপতি নূর হাকিম সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী নান্টু পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নিজের ঘরে নিজে আগুন দিয়ে মিথ্যা মামলায় হয়রানি গ্রামবাসীদের ফাঁসানোর চেষ্টা! সেুঁজুতির মনোনয়ন নিয়ে সাতক্ষীরায় তোলপাড়, শশুর রাজাকার! ভাসুর বিএনপি নেতা সাতকানিয়া ছদাহা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে অবৈধভাবে মাটি কাটায় ৫০ (হাজার) টাকা জরিমানা বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের ববি শাখার নেতৃত্বে ইব্রাহিম-শান্ত প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

বাজুস ফেয়ার-২৩ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ০১:৩৯:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩
  • ২৩২১ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেকঃ অদ্য ৩১ জানুয়ারি-২৩ ইং বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন (বাজুস)।সারাদেশে প্রায় ৪০ হাজার জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানের প্রাণের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন মেলা-২০২৩ উপলক্ষে আয়োজিত সাংবাদিক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় বাজুসের প্রধান কার্যালয়ে।

দেশের অর্থনীতিতে অনবদ্য ভূমিকা রাখা বাংলাদেশের জুয়েলারি শিল্পের সবচেয়ে বড় আয়োজন বাজুস ফেয়ার-২০২৩ আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি-২০২৩ ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি
বসুন্ধরার (আইসিসিবি) ৪ নং হল নবরাত্রিতে অনুষ্ঠিত হবে।প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত বাজুস ফেয়ার ক্রেতা- দর্শনার্থীদের জন্য উম্মুক্ত থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন-২০৪১ সফল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাজুস প্রেসিডেন্ট সায়েম সোবহান আনভীরের পরিকল্পনায় দেশের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারে মতো বাজুস ফেয়ার-২০২৩ আয়োজন করা হয়েছে।

বাজুস ফেয়ারে প্রবেশ টিকিটের মূল্য জনপ্রতি ১০০ টাকা। ৫ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুদের টিকেট লাগবে না। বাজুস ফেয়ারে ক্রেতাদের জন্য র‍্যাফেল ড্র’র ব্যবস্থা করা হয়েছে। ক্রেতারা যে প্রতিষ্ঠানের অলঙ্কার ক্রয় করবেন, সেই প্রতিষ্ঠান থেকেই র‍্যাফেল ড্র’র কূপন সংগ্রহ করবেন। এছাড়াও জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রেতাদের মনোযোগ আকর্ষনে বিশেষ অফার দিচ্ছেন।

বাজুস ফেয়ার ২০২৩ দেশীয় জুয়েলারি শিল্পকে সমৃদ্ধশালী করার পাশাপাশি বিশ্ববাজারে একটি নতুন অবস্থান তৈরিতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে বাজুস আশা করছে। দেশের স্বর্ণ শিল্পীদের হাতে গড়া নিত্য নতুন আধুনিক ডিজাইনের অলংকারের পরিচিতি বাড়বে।

এই লক্ষ্যে ‘বাজুস ফেয়ার-২০২৩’ এ সকল ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের সাদর আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আমরা আশা করছি- বাংলাদেশের জুয়েলারি শিল্পের বিদ্যমান অবস্থা এবং এর ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা সম্পর্কে দেশের ১৮ কোটি মানুষ অবগত হবে বলে জানান বাজুস নেতারা।

এবার বাজুস ফেয়ারে ৮ টি প্যাভিলিয়ন, ১২ টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ৩০টি স্টলে দেশের ঐতিহ্যবাহী ৫০টি জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে।

বাজুস ফেয়ার- ২০২৩ এ প্যাভেলিয়নে অংশ নেওয়া ৮টি প্রতিষ্ঠান হলো,আমিন জুয়েলার্স লিমিটেড, আপন জুয়েলার্স, অলংকার নিকেতন (প্রাঃ) লিমিটেড, কুঞ্জ জুয়েলার্স, রয়েল মালাবার জুয়েলার্স (বিডি) লিঃ, ভেনাস জুয়েলার্স লিমিটেড, ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড লিমিটেড ও জড়োয়া হাউজ (প্রাঃ) লিমিটেড।
মিনি প্যাভেলিয়নে অংশ নেওয়া ১২টি প্রতিষ্ঠান হলো: ভিনায়েক গোল্ড এন্ড ডায়মন্ড, গোল্ডেন ওয়ার্ল্ড, গৌরব জুয়েলার্স, নিউ ফেন্সী জুয়েলার্স, দি পার্ল ওয়েসিস জুয়েলার্স, জায়া গোল্ড, জারা গোল্ড, আলভী জুয়েলার্স, রিজভী জুয়েলার্স, রয়েল ডায়মন্ড, ড্রিমজ ইন্সট্রুমেন্ট টেকনোলজি ও রাজ ঐশ্বরী গোল্ড ।

স্টলে অংশ নেওয়া ৩০টি প্রতিষ্ঠান হলো: এল কে জুয়েলার্স, চৌধুরী গোল্ড, গীতাঞ্জলী জুয়েলার্স, রিয়া জুয়েলার্স, আনন্দ জুয়েলার্স, ডায়মন্ড হাউজ, আফতাব জুয়েলার্স, ফারিহা জুয়েলার্স, আই. কে জুয়েলার্স লিমিটেড, রজনীগন্ধা জুয়েলার্স লিমিটেড, সুলতানা জুয়েলার্স (প্রাঃ) লিমিটেড, নিবিড় জুয়েলার্স, সিরাজ জুয়েলার্স, ডায়মন্ড বাজার এন্ড গোল্ড, অনন্যা জুয়েলার্স, ডায়া গোল্ড এন্ড ডায়মন্ড, ডি. ডামাস দি আর্ট অব জুয়েলারী, ডি. ডায়মন্ড, কুইন পার্ল হাউজ, নিউ বসুন্ধরা জুয়েলার্স, সোল জেমস এন্ড ডায়মন্ড, পলাশ জুয়েলার্স, ক্লাসিক গোল্ড এন্ড ডায়মন্ড জুয়েলারী, ডায়মন্ড কর্ণার, গোল্ড কিং জুয়েলার্স, দি সোনারগাঁ জুয়েলার্স, মনিমালা জুয়েলার্স, আর এন মাইক্রোটেক, বাংলাদেশ ডাইস হাউজ, ও এসজিএল ল্যাব বাংলাদেশ লিমিটেড।বাজুস ফেয়ার-২০২৩ সফল ও সার্থক করার জন্য গণমাধ্যমের বন্ধুদের সহযোগিতা কামনা করছেন বাজুসের নবনির্বাচিত সদস্যরা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

জাতীয় সংবাদ পরিষদের সভাপতি নূর হাকিম সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী নান্টু

বাজুস ফেয়ার-২৩ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০১:৩৯:১৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেকঃ অদ্য ৩১ জানুয়ারি-২৩ ইং বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন (বাজুস)।সারাদেশে প্রায় ৪০ হাজার জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানের প্রাণের সংগঠন বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন মেলা-২০২৩ উপলক্ষে আয়োজিত সাংবাদিক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয় বাজুসের প্রধান কার্যালয়ে।

দেশের অর্থনীতিতে অনবদ্য ভূমিকা রাখা বাংলাদেশের জুয়েলারি শিল্পের সবচেয়ে বড় আয়োজন বাজুস ফেয়ার-২০২৩ আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি-২০২৩ ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি
বসুন্ধরার (আইসিসিবি) ৪ নং হল নবরাত্রিতে অনুষ্ঠিত হবে।প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত বাজুস ফেয়ার ক্রেতা- দর্শনার্থীদের জন্য উম্মুক্ত থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন-২০৪১ সফল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাজুস প্রেসিডেন্ট সায়েম সোবহান আনভীরের পরিকল্পনায় দেশের ইতিহাসে দ্বিতীয়বারে মতো বাজুস ফেয়ার-২০২৩ আয়োজন করা হয়েছে।

বাজুস ফেয়ারে প্রবেশ টিকিটের মূল্য জনপ্রতি ১০০ টাকা। ৫ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুদের টিকেট লাগবে না। বাজুস ফেয়ারে ক্রেতাদের জন্য র‍্যাফেল ড্র’র ব্যবস্থা করা হয়েছে। ক্রেতারা যে প্রতিষ্ঠানের অলঙ্কার ক্রয় করবেন, সেই প্রতিষ্ঠান থেকেই র‍্যাফেল ড্র’র কূপন সংগ্রহ করবেন। এছাড়াও জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানগুলো ক্রেতাদের মনোযোগ আকর্ষনে বিশেষ অফার দিচ্ছেন।

বাজুস ফেয়ার ২০২৩ দেশীয় জুয়েলারি শিল্পকে সমৃদ্ধশালী করার পাশাপাশি বিশ্ববাজারে একটি নতুন অবস্থান তৈরিতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে বাজুস আশা করছে। দেশের স্বর্ণ শিল্পীদের হাতে গড়া নিত্য নতুন আধুনিক ডিজাইনের অলংকারের পরিচিতি বাড়বে।

এই লক্ষ্যে ‘বাজুস ফেয়ার-২০২৩’ এ সকল ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের সাদর আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। আমরা আশা করছি- বাংলাদেশের জুয়েলারি শিল্পের বিদ্যমান অবস্থা এবং এর ভবিষ্যৎ সম্ভাবনা সম্পর্কে দেশের ১৮ কোটি মানুষ অবগত হবে বলে জানান বাজুস নেতারা।

এবার বাজুস ফেয়ারে ৮ টি প্যাভিলিয়ন, ১২ টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ৩০টি স্টলে দেশের ঐতিহ্যবাহী ৫০টি জুয়েলারি প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করবে।

বাজুস ফেয়ার- ২০২৩ এ প্যাভেলিয়নে অংশ নেওয়া ৮টি প্রতিষ্ঠান হলো,আমিন জুয়েলার্স লিমিটেড, আপন জুয়েলার্স, অলংকার নিকেতন (প্রাঃ) লিমিটেড, কুঞ্জ জুয়েলার্স, রয়েল মালাবার জুয়েলার্স (বিডি) লিঃ, ভেনাস জুয়েলার্স লিমিটেড, ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড লিমিটেড ও জড়োয়া হাউজ (প্রাঃ) লিমিটেড।
মিনি প্যাভেলিয়নে অংশ নেওয়া ১২টি প্রতিষ্ঠান হলো: ভিনায়েক গোল্ড এন্ড ডায়মন্ড, গোল্ডেন ওয়ার্ল্ড, গৌরব জুয়েলার্স, নিউ ফেন্সী জুয়েলার্স, দি পার্ল ওয়েসিস জুয়েলার্স, জায়া গোল্ড, জারা গোল্ড, আলভী জুয়েলার্স, রিজভী জুয়েলার্স, রয়েল ডায়মন্ড, ড্রিমজ ইন্সট্রুমেন্ট টেকনোলজি ও রাজ ঐশ্বরী গোল্ড ।

স্টলে অংশ নেওয়া ৩০টি প্রতিষ্ঠান হলো: এল কে জুয়েলার্স, চৌধুরী গোল্ড, গীতাঞ্জলী জুয়েলার্স, রিয়া জুয়েলার্স, আনন্দ জুয়েলার্স, ডায়মন্ড হাউজ, আফতাব জুয়েলার্স, ফারিহা জুয়েলার্স, আই. কে জুয়েলার্স লিমিটেড, রজনীগন্ধা জুয়েলার্স লিমিটেড, সুলতানা জুয়েলার্স (প্রাঃ) লিমিটেড, নিবিড় জুয়েলার্স, সিরাজ জুয়েলার্স, ডায়মন্ড বাজার এন্ড গোল্ড, অনন্যা জুয়েলার্স, ডায়া গোল্ড এন্ড ডায়মন্ড, ডি. ডামাস দি আর্ট অব জুয়েলারী, ডি. ডায়মন্ড, কুইন পার্ল হাউজ, নিউ বসুন্ধরা জুয়েলার্স, সোল জেমস এন্ড ডায়মন্ড, পলাশ জুয়েলার্স, ক্লাসিক গোল্ড এন্ড ডায়মন্ড জুয়েলারী, ডায়মন্ড কর্ণার, গোল্ড কিং জুয়েলার্স, দি সোনারগাঁ জুয়েলার্স, মনিমালা জুয়েলার্স, আর এন মাইক্রোটেক, বাংলাদেশ ডাইস হাউজ, ও এসজিএল ল্যাব বাংলাদেশ লিমিটেড।বাজুস ফেয়ার-২০২৩ সফল ও সার্থক করার জন্য গণমাধ্যমের বন্ধুদের সহযোগিতা কামনা করছেন বাজুসের নবনির্বাচিত সদস্যরা।