ঢাকা ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
বরিশালের দুটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ প্রতীক পেয়েই প্রচারনায় ২১ প্রার্থী! ডিএমপি কোতয়ালী থানার উদ্যোগে পথচারী’দের মাঝে সুপেয় পানি ও স্যালাইন বিতরন ডিএমপি ডেমরা থানার উদ্যোগে পথচারী’দের মাঝে সুপেয় পানি ও স্যালাইন বিতরন গোদাগাড়ী মডেল থানার ওসি আব্দুল মতিন জেলার শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত চাঞ্চল্যকর শিশু সুবর্ণা গণধর্ষণসহ হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন করল পিবিআই তীব্র গরমে ডিএমপি সবুজবাগ থানার উদ্যোগে পথচারী’দের মাঝে সুপেয় পানি ও স্যালাইন বিতরন ইপিজেড থানা কমিউনিটি পুলিশিং এর উদ্যোগে আইন শৃঙ্খলা ও কিশোর গ্যাং প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত প্রচণ্ড দাবদাহে পথচারীদের মাঝে হাজারীবাগ থানা পুলিশের উদ্দ্যোগে বিশুদ্ধ পানি বিতরন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল বকুল ও চন্দনে ‘গানেরও বন্ধনে’ বাকেরগঞ্জে ১১ কোটি টাকা ব্যায়ে মডেল মসজিদ নির্মাণে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ!

মসজিদ বরাদ্দের টাকা নিয়ে লা-পাত্তা প্রতারক ইমরান খান!

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ০৩:০৭:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • ২৩৮৮ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সাম্প্রতিক সময়ে মু্ন্সীগন্জ জেলা গজারিয়া থানার গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর নামে মোটা অংকের টাকা বরাদ্দ করে লাফাত্তা হয়ে গেছে রাজধানীর সবুজবাগ বাসাবো এলাকার প্রতারক মোঃ ইমরান খান।

এই বিষয়ে গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর সভাপতি মোঃ মোসলেম প্রধান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমাদের মসজিদটি পাকা টাইলসকৃত মসজিদ ছিলো,বেশ ভালোভাবে মুসল্লীরা উক্ত মসজিদ এ প্রতিনিয়ত নামাজ পড়তে পারতো । হঠাৎ করে ইমরান খান নামে এক প্রতারক এসে বলে আপনাদের এই মসজিদ আমি বিদেশী এক সংস্থা মাধ্যমে অনেক বড় করে দিবো যাতে করে এলাকার অনেক ধর্মপ্রান মুসলমান এক সাথে জামাতের সহিত নামাজ পড়তে পারে ।তখন তিনি বলেন তার জন্য বৈধ কি আছে আপনাকে কিভাবে আমরা বিশ্বাস করবো যে আপনি করে দিবেন?তখন প্রতারক ইমরান খান বলেন আপনাকে আমি দালিলিক চুক্তিপত্র করে দিবো এক বছরের মধ্য আপনার মসজিদ এর নির্মান কাজ শেষ করে দিবো। তার এমন মিথ্যা প্রতারনামূলক কথা আমি প্রতারিত হয়ে যায় । পরম করুণাময় মহান আল্লাহ তায়ালার পবিত্র নাম স্মরণ করিয়া গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর নির্মাণ কাজ হয় পক্ষ স্বাদ কনস্ট্রাকশন বিল্ডার্স লিঃ এর সাথে নিম্নোক্ত শর্ত সাপেকে চুক্তিনামা সম্পাদন করি একশত টাকার ২ টি স্ট্যাম্পে ।পরভর্তিতে তার কথা অনুযায়ী পাকা মসজিদ টাইলসকৃত মসজিদ ভাঙ্গা হয় ।

চুক্তি অনুযায়ী এক বছর মসজিদ টির নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলে ও ২ বছর পার হলেও এখন পযর্ন্ত মসজিদ কোনো উন্নয়নের কাজ হয়নি আগের মতো মসজিদ টি পড়ে আছে।যাতে করে প্রতিনিয়ত ধর্মপ্রাণ মুসলমান গুলোর নামাজ পড়তে খুব কষ্ট হচ্ছে ।

সুধু তাই নয় প্রতারক ইমরান খান এরই মধ্য মসজিদ ওয়াকর্ফ করার কথা বলে ৮০ হাজার টাকা ও দশ(১০)জন ধর্মপ্রাণ মুসলমান কে হজ্ব করাবে বলে ১০ জন এর কাছ থেকে দশ হাজার করে এক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় ।
এই বিষয়ে প্রতারক ইমরান এর ফোনে বারবার কল দিয়ে ও যোগাযোগ করা যায়নি।

এই বিষয়ে গজারীয়া থানায় মামলা দিতে গিয়ে মামলা নিলো না গজারীয়া থানা পুলিশ।পরভর্তিতে একটা অভিযোগ নিয়েছেন অভিযোগ নিয়ে ও কোনো পদক্ষেপ নেয় নি গজারীয়া থানা পুলিশ।

এমনতাবস্থায় আপনাদের মাধ্যমে এই প্রতারকের একটা উপযুক্ত শাস্তি ও ধর্মপ্রাণ কোনো মুসলমান আমাদের এই মসজিদ টি নির্মানে কাজে সহায়তা করার জন্য ও আকুল আবেদন জানাচ্ছি।গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর যোগাযোগ ঠিকানা নিচে দেওয়া হলো।
সাধারন সম্পাদক-০১৯৩০৬৫৫৩৭৯👈

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

বরিশালের দুটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ প্রতীক পেয়েই প্রচারনায় ২১ প্রার্থী!

মসজিদ বরাদ্দের টাকা নিয়ে লা-পাত্তা প্রতারক ইমরান খান!

আপডেট সময় : ০৩:০৭:০২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সাম্প্রতিক সময়ে মু্ন্সীগন্জ জেলা গজারিয়া থানার গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর নামে মোটা অংকের টাকা বরাদ্দ করে লাফাত্তা হয়ে গেছে রাজধানীর সবুজবাগ বাসাবো এলাকার প্রতারক মোঃ ইমরান খান।

এই বিষয়ে গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর সভাপতি মোঃ মোসলেম প্রধান এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমাদের মসজিদটি পাকা টাইলসকৃত মসজিদ ছিলো,বেশ ভালোভাবে মুসল্লীরা উক্ত মসজিদ এ প্রতিনিয়ত নামাজ পড়তে পারতো । হঠাৎ করে ইমরান খান নামে এক প্রতারক এসে বলে আপনাদের এই মসজিদ আমি বিদেশী এক সংস্থা মাধ্যমে অনেক বড় করে দিবো যাতে করে এলাকার অনেক ধর্মপ্রান মুসলমান এক সাথে জামাতের সহিত নামাজ পড়তে পারে ।তখন তিনি বলেন তার জন্য বৈধ কি আছে আপনাকে কিভাবে আমরা বিশ্বাস করবো যে আপনি করে দিবেন?তখন প্রতারক ইমরান খান বলেন আপনাকে আমি দালিলিক চুক্তিপত্র করে দিবো এক বছরের মধ্য আপনার মসজিদ এর নির্মান কাজ শেষ করে দিবো। তার এমন মিথ্যা প্রতারনামূলক কথা আমি প্রতারিত হয়ে যায় । পরম করুণাময় মহান আল্লাহ তায়ালার পবিত্র নাম স্মরণ করিয়া গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর নির্মাণ কাজ হয় পক্ষ স্বাদ কনস্ট্রাকশন বিল্ডার্স লিঃ এর সাথে নিম্নোক্ত শর্ত সাপেকে চুক্তিনামা সম্পাদন করি একশত টাকার ২ টি স্ট্যাম্পে ।পরভর্তিতে তার কথা অনুযায়ী পাকা মসজিদ টাইলসকৃত মসজিদ ভাঙ্গা হয় ।

চুক্তি অনুযায়ী এক বছর মসজিদ টির নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলে ও ২ বছর পার হলেও এখন পযর্ন্ত মসজিদ কোনো উন্নয়নের কাজ হয়নি আগের মতো মসজিদ টি পড়ে আছে।যাতে করে প্রতিনিয়ত ধর্মপ্রাণ মুসলমান গুলোর নামাজ পড়তে খুব কষ্ট হচ্ছে ।

সুধু তাই নয় প্রতারক ইমরান খান এরই মধ্য মসজিদ ওয়াকর্ফ করার কথা বলে ৮০ হাজার টাকা ও দশ(১০)জন ধর্মপ্রাণ মুসলমান কে হজ্ব করাবে বলে ১০ জন এর কাছ থেকে দশ হাজার করে এক লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় ।
এই বিষয়ে প্রতারক ইমরান এর ফোনে বারবার কল দিয়ে ও যোগাযোগ করা যায়নি।

এই বিষয়ে গজারীয়া থানায় মামলা দিতে গিয়ে মামলা নিলো না গজারীয়া থানা পুলিশ।পরভর্তিতে একটা অভিযোগ নিয়েছেন অভিযোগ নিয়ে ও কোনো পদক্ষেপ নেয় নি গজারীয়া থানা পুলিশ।

এমনতাবস্থায় আপনাদের মাধ্যমে এই প্রতারকের একটা উপযুক্ত শাস্তি ও ধর্মপ্রাণ কোনো মুসলমান আমাদের এই মসজিদ টি নির্মানে কাজে সহায়তা করার জন্য ও আকুল আবেদন জানাচ্ছি।গোসাইর চর প্রধান বাড়ি জামে মসজিদ এর যোগাযোগ ঠিকানা নিচে দেওয়া হলো।
সাধারন সম্পাদক-০১৯৩০৬৫৫৩৭৯👈