ঢাকা ০২:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকায় ভোট দেওয়ার আহবান চেয়ারম্যান আশ্রাফুজ্জামান খান খোকনের ! বানোয়াট তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে সহকারী শিক্ষীকা সহ ৩জনকে আইনি নোটিশ ডিসেম্বর হচ্ছে পৃথিবীর মানচিত্রে একটি নতুন জাতি ও ভূখণ্ডের স্বীকৃতি আদায়ের মাস শ্রেষ্ঠ পরিচালক হিসেবে সুজন বড়ুয়া’র শাহ আব্দুল করিম (এসএকে) অ্যাওয়ার্ড জয় মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী : নাহিম রাজ্জাক। হরিপুরে, ঠাকুরগাঁও-২ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল! সুনামগঞ্জের ৫টি সংসদীয় আসনে  মোট ২১জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল বাগেরহাটে নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে ক্যাম্পেইন মৌলভীবাজার-১ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন পরিবেশমন্ত্রী মো: শাহাব উদ্দিন মধুপুরে মনোনয়ন পত্র জমা দিলেন কৃষিমন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক এমপি

মৃত্যুবার্ষিকীতে সাবেক ডেপুটি স্পিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা কর্ণেল শওকত আলীর প্রতি শ্রদ্ধা

  • আপডেট সময় : ০৬:৫৯:০০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০২৩
  • ২০০৮ বার পড়া হয়েছে

শরীয়তপুর ব্যুরো:- সাবেক ডেপুটি স্পিকার কর্নেল (অব.) শওকত আলীর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। ২০২০ সালের ১৬ নভেম্বর মৃত্যুবরণ করেন তিনি।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় নড়িয়া স্বাধীনতা ভবনে শওকত আলীর সমাধিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের সদস্যরা পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। পরে সকাল ১১টায় কর্নেল শওকত আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে স্মরণ সভা, দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া মাহফিল ও স্মরণ সভায় উপস্থিত ছিলেন উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ডা খালেদ শওকত আলী, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক জেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার আব্দুর রাজ্জাক সরদার, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও জিপি অ্যাডভোকেট আলমগীর মুন্সি উপজেলা পরিষদের সদস্য
আলী আজগর চুন্নু , কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য আলতাফ হোসেন ছৈয়াল, নড়িয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান
বি এম মনির হোসেন, ভূমখাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বাবুল ঢালী,
সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদপ্তর সম্পাদক দাদন সরদার, চরভাগা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি
মতিউর রহমান মতি মাস্টার প্রমুখ।

কর্নেল শওকত আলী ১৯৩৭ সালের ২৭ জানুয়ারি শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার লোনসিং বাহের দীঘিপার গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা নাম মুন্সী মোবারক আলী ও মায়ের নাম মালেকা বেগম। কর্নেল শওকত আলী ১৯৬৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৯৭৬ সালে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সনদপ্রাপ্ত হন ও ১৯৭৮ সালে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদ লাভ করেন। কর্নেল শওকত আলী ২৪ জানুয়ারি ১৯৫৯ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর অর্ডন্যান্স কোর এ কমিশন লাভ করেন। তাঁকে অকাল পাকিস্তান সেনাবাহিনী থেকে ১৯৬৯ সালে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয়। তিনি ১৯৭১ সালে সক্রিয়ভাবে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। মুক্তিযুদ্ধের পর বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে কর্নেল শওকত আলী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালে বাংলাদেশের শত্রুদের দ্বারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিহত হওয়ার পর কর্নেল শওকত আলীকে দ্বিতীয়বার বাংলাদেশ সেনাবাহিনী থেকে পুনরায় বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয়। কর্নেল শওকত আলী ১৯৭৭ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগদান করেন এবং ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন।

ট্যাগস :

সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকায় ভোট দেওয়ার আহবান চেয়ারম্যান আশ্রাফুজ্জামান খান খোকনের !

মৃত্যুবার্ষিকীতে সাবেক ডেপুটি স্পিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা কর্ণেল শওকত আলীর প্রতি শ্রদ্ধা

আপডেট সময় : ০৬:৫৯:০০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০২৩

শরীয়তপুর ব্যুরো:- সাবেক ডেপুটি স্পিকার কর্নেল (অব.) শওকত আলীর তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। ২০২০ সালের ১৬ নভেম্বর মৃত্যুবরণ করেন তিনি।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় নড়িয়া স্বাধীনতা ভবনে শওকত আলীর সমাধিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ যুবলীগ ও ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের সদস্যরা পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। পরে সকাল ১১টায় কর্নেল শওকত আলী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে স্মরণ সভা, দোয়া ও মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া মাহফিল ও স্মরণ সভায় উপস্থিত ছিলেন উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ডা খালেদ শওকত আলী, শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক জেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার আব্দুর রাজ্জাক সরদার, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও জিপি অ্যাডভোকেট আলমগীর মুন্সি উপজেলা পরিষদের সদস্য
আলী আজগর চুন্নু , কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক সদস্য আলতাফ হোসেন ছৈয়াল, নড়িয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান
বি এম মনির হোসেন, ভূমখাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান বাবুল ঢালী,
সখিপুর থানা আওয়ামী লীগের সাবেক উপদপ্তর সম্পাদক দাদন সরদার, চরভাগা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি
মতিউর রহমান মতি মাস্টার প্রমুখ।

কর্নেল শওকত আলী ১৯৩৭ সালের ২৭ জানুয়ারি শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলার লোনসিং বাহের দীঘিপার গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বাবা নাম মুন্সী মোবারক আলী ও মায়ের নাম মালেকা বেগম। কর্নেল শওকত আলী ১৯৬৯ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৯৭৬ সালে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সনদপ্রাপ্ত হন ও ১৯৭৮ সালে সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদ লাভ করেন। কর্নেল শওকত আলী ২৪ জানুয়ারি ১৯৫৯ সালে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর অর্ডন্যান্স কোর এ কমিশন লাভ করেন। তাঁকে অকাল পাকিস্তান সেনাবাহিনী থেকে ১৯৬৯ সালে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয়। তিনি ১৯৭১ সালে সক্রিয়ভাবে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। মুক্তিযুদ্ধের পর বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে কর্নেল শওকত আলী বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন। কিন্তু ১৯৭৫ সালে বাংলাদেশের শত্রুদের দ্বারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিহত হওয়ার পর কর্নেল শওকত আলীকে দ্বিতীয়বার বাংলাদেশ সেনাবাহিনী থেকে পুনরায় বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠানো হয়। কর্নেল শওকত আলী ১৯৭৭ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগদান করেন এবং ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন।