ঢাকা ০৮:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ হাসান বিপ্লব নড়াইলের সাত ঘরিয়ায় মতুয়া মহাউৎসব ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মধুপুরে বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের দায়ে জরিমানা বদলগাছী উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি সানাউল হক হিরোর বিরুদ্ধে ছাগল চুরির অভিযোগ মৌলভীবাজারে বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি একযুগ পর এসআই পরেশ কারবারি হত্যা মামলার পলাতক আসামী গ্রেপ্তার বাকেরগঞ্জে চেয়ারম্যান হানিফ তালুকদার কর্মসৃজন প্রকল্পের কাজ না করেই প্রকল্পের টাকা উত্তোলন প্রকাশ হলো সুজন-তুলসীর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র “কলেজ গার্ল” গাজীপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরে সাংবাদিকের গাছপালা কেটে ক্ষতিসাধন মধুপুরে প্রাইভেটকার ও মাহিন্দ্রার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২ আহত ৮

মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের এনডিএম’র প্রার্থী হলেন জাবেদুর রহমান জনি

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ১২:৪৪:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩
  • ২৪৮২ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ (গাংনী) আসন থেকে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম) কর্তৃক মনোনীত প্রার্থী হয়েছেন দলটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক জাবেদুর রহমান জনি।

গত (১৪ই জানুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আগাম প্রার্থী তালিকা ঘোষণা অনুষ্ঠানে এই মনোনয়ন প্রকাশ করেন এনডিএম চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ববি হাজ্জাজ বলেন, আমাদের লক্ষ্য ১৫১ আসন। সংবাদ সম্মেলন থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রথম পর্যায়ে

এনডিএম’র ৩০ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয় ।
তারমধ্য জাবেদুর রহমান জনি গাংনী শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মরহুম আমিনুর রহমান ঝন্টুর ছেলে।গাংনী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এস. এস. সি পাশ করে যশোরের বি. সি. এম. সি কলেজ ও ঢাকার আই. আই. এস. টি থেকে ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং শেষ করেন। কর্মজীবন শুরু সাংবাদিকতার মাধ্যমে। কিছুদিন ট্রাভেল (এয়ার টিকেটিং) এজেন্সিতে কিছুদিন চাকুরী করারপর যোগদেন স্বনামধন্য মাইলস্টোন স্কুল অ্যান্ড কলেজে। এক সময় শুরু করেন নিজের ব্যবসা ।

২০১৬ সালে বাবার অকাল মৃত্যুতে পরিবারের সিদ্ধান্তে ফিরে আসেন নিজ বাড়িতে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক। ছাত্র জীবন থেকেই শুরু করেছিলেন সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ড। সমাজসেবার লক্ষ নিয়েই এনডিএম- এর মাননীয় চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজের হাত ধরে যোগদেন রাজনীতিতে। তিনি গাংনী উপজেলা এনডিএম- এর প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক এবং মেহেরপুর জেলা এনডিএম- এর সমন্বয়কারী ছিলেন। বর্তমানে কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আছেন। তার রাজনীতির লক্ষ্যই হলো জনসেবা।

মো. জাবেদুর রহমান জনি বলেন, “আমার রাজনীতির মূল চালিকাশক্তি হলো বয়োজ্যেষ্ঠদের দোয়া ও তরুণ প্রজন্ম। আমি রাজনীতিতে এসেছি সমাজ ও দেশের জন্য কাজ করতে। আগামী নির্বাচনে তরুণ ভোটাররাই হবেন নিয়ামক শক্তি। এক তৃতীয়াংশের বেশি নতুন এবং তরুণ ভোটারদের সিদ্ধান্তের ওপরই নির্ভর করবে আগামীতে বাংলাদেশের সাধারণ জনগণের ভাগ্য। এজন্য তরুণদের বলতে চাই, পরিবর্তনের আওয়াজ তুলুন। যারা রাজনীতি করেন শুধু তারাই নন, রাজনীতির বাইরে থাকা তরুণদেরকেও বলছি, সঠিক সিদ্ধান্ত নিন। পরিবর্তনের এখনই সঠিক সময়।জাবেদুর রহমান জনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ এনডিএম সমর্থিত গণ ঐক্যের প্রার্থী ছিলেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

রাজশাহী মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ হাসান বিপ্লব

মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের এনডিএম’র প্রার্থী হলেন জাবেদুর রহমান জনি

আপডেট সময় : ১২:৪৪:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ (গাংনী) আসন থেকে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম) কর্তৃক মনোনীত প্রার্থী হয়েছেন দলটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক জাবেদুর রহমান জনি।

গত (১৪ই জানুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আগাম প্রার্থী তালিকা ঘোষণা অনুষ্ঠানে এই মনোনয়ন প্রকাশ করেন এনডিএম চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ববি হাজ্জাজ বলেন, আমাদের লক্ষ্য ১৫১ আসন। সংবাদ সম্মেলন থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রথম পর্যায়ে

এনডিএম’র ৩০ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয় ।
তারমধ্য জাবেদুর রহমান জনি গাংনী শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মরহুম আমিনুর রহমান ঝন্টুর ছেলে।গাংনী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এস. এস. সি পাশ করে যশোরের বি. সি. এম. সি কলেজ ও ঢাকার আই. আই. এস. টি থেকে ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং শেষ করেন। কর্মজীবন শুরু সাংবাদিকতার মাধ্যমে। কিছুদিন ট্রাভেল (এয়ার টিকেটিং) এজেন্সিতে কিছুদিন চাকুরী করারপর যোগদেন স্বনামধন্য মাইলস্টোন স্কুল অ্যান্ড কলেজে। এক সময় শুরু করেন নিজের ব্যবসা ।

২০১৬ সালে বাবার অকাল মৃত্যুতে পরিবারের সিদ্ধান্তে ফিরে আসেন নিজ বাড়িতে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক। ছাত্র জীবন থেকেই শুরু করেছিলেন সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ড। সমাজসেবার লক্ষ নিয়েই এনডিএম- এর মাননীয় চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজের হাত ধরে যোগদেন রাজনীতিতে। তিনি গাংনী উপজেলা এনডিএম- এর প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক এবং মেহেরপুর জেলা এনডিএম- এর সমন্বয়কারী ছিলেন। বর্তমানে কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আছেন। তার রাজনীতির লক্ষ্যই হলো জনসেবা।

মো. জাবেদুর রহমান জনি বলেন, “আমার রাজনীতির মূল চালিকাশক্তি হলো বয়োজ্যেষ্ঠদের দোয়া ও তরুণ প্রজন্ম। আমি রাজনীতিতে এসেছি সমাজ ও দেশের জন্য কাজ করতে। আগামী নির্বাচনে তরুণ ভোটাররাই হবেন নিয়ামক শক্তি। এক তৃতীয়াংশের বেশি নতুন এবং তরুণ ভোটারদের সিদ্ধান্তের ওপরই নির্ভর করবে আগামীতে বাংলাদেশের সাধারণ জনগণের ভাগ্য। এজন্য তরুণদের বলতে চাই, পরিবর্তনের আওয়াজ তুলুন। যারা রাজনীতি করেন শুধু তারাই নন, রাজনীতির বাইরে থাকা তরুণদেরকেও বলছি, সঠিক সিদ্ধান্ত নিন। পরিবর্তনের এখনই সঠিক সময়।জাবেদুর রহমান জনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ এনডিএম সমর্থিত গণ ঐক্যের প্রার্থী ছিলেন।