ঢাকা ০৪:২৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন যুবলীগ নেতার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী গ্রেফতার! ৪ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি’কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে দাগনভূঁঞা থানা পুলিশ দূর্নীতিমুক্ত রিহ‍্যাব গড়তে চান আলিমুল্লাহ খোকন টিলাগাঁও আজিজুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের তৃতীয় বারের মত সভাপতি নির্বাচিত শামিম আহমদ ‘কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এর ‘কিশোর গ্যাং-কীভাবে এলো, কীভাবে রুখবো’দুইটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের এনডিএম’র প্রার্থী হলেন জাবেদুর রহমান জনি

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ১২:৪৪:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩
  • ২৪০৯ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ (গাংনী) আসন থেকে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম) কর্তৃক মনোনীত প্রার্থী হয়েছেন দলটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক জাবেদুর রহমান জনি।

গত (১৪ই জানুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আগাম প্রার্থী তালিকা ঘোষণা অনুষ্ঠানে এই মনোনয়ন প্রকাশ করেন এনডিএম চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ববি হাজ্জাজ বলেন, আমাদের লক্ষ্য ১৫১ আসন। সংবাদ সম্মেলন থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রথম পর্যায়ে

এনডিএম’র ৩০ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয় ।
তারমধ্য জাবেদুর রহমান জনি গাংনী শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মরহুম আমিনুর রহমান ঝন্টুর ছেলে।গাংনী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এস. এস. সি পাশ করে যশোরের বি. সি. এম. সি কলেজ ও ঢাকার আই. আই. এস. টি থেকে ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং শেষ করেন। কর্মজীবন শুরু সাংবাদিকতার মাধ্যমে। কিছুদিন ট্রাভেল (এয়ার টিকেটিং) এজেন্সিতে কিছুদিন চাকুরী করারপর যোগদেন স্বনামধন্য মাইলস্টোন স্কুল অ্যান্ড কলেজে। এক সময় শুরু করেন নিজের ব্যবসা ।

২০১৬ সালে বাবার অকাল মৃত্যুতে পরিবারের সিদ্ধান্তে ফিরে আসেন নিজ বাড়িতে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক। ছাত্র জীবন থেকেই শুরু করেছিলেন সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ড। সমাজসেবার লক্ষ নিয়েই এনডিএম- এর মাননীয় চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজের হাত ধরে যোগদেন রাজনীতিতে। তিনি গাংনী উপজেলা এনডিএম- এর প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক এবং মেহেরপুর জেলা এনডিএম- এর সমন্বয়কারী ছিলেন। বর্তমানে কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আছেন। তার রাজনীতির লক্ষ্যই হলো জনসেবা।

মো. জাবেদুর রহমান জনি বলেন, “আমার রাজনীতির মূল চালিকাশক্তি হলো বয়োজ্যেষ্ঠদের দোয়া ও তরুণ প্রজন্ম। আমি রাজনীতিতে এসেছি সমাজ ও দেশের জন্য কাজ করতে। আগামী নির্বাচনে তরুণ ভোটাররাই হবেন নিয়ামক শক্তি। এক তৃতীয়াংশের বেশি নতুন এবং তরুণ ভোটারদের সিদ্ধান্তের ওপরই নির্ভর করবে আগামীতে বাংলাদেশের সাধারণ জনগণের ভাগ্য। এজন্য তরুণদের বলতে চাই, পরিবর্তনের আওয়াজ তুলুন। যারা রাজনীতি করেন শুধু তারাই নন, রাজনীতির বাইরে থাকা তরুণদেরকেও বলছি, সঠিক সিদ্ধান্ত নিন। পরিবর্তনের এখনই সঠিক সময়।জাবেদুর রহমান জনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ এনডিএম সমর্থিত গণ ঐক্যের প্রার্থী ছিলেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে

মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনের এনডিএম’র প্রার্থী হলেন জাবেদুর রহমান জনি

আপডেট সময় : ১২:৪৪:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ (গাংনী) আসন থেকে জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলন (এনডিএম) কর্তৃক মনোনীত প্রার্থী হয়েছেন দলটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক জাবেদুর রহমান জনি।

গত (১৪ই জানুয়ারি) জাতীয় প্রেস ক্লাবে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আগাম প্রার্থী তালিকা ঘোষণা অনুষ্ঠানে এই মনোনয়ন প্রকাশ করেন এনডিএম চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ববি হাজ্জাজ বলেন, আমাদের লক্ষ্য ১৫১ আসন। সংবাদ সম্মেলন থেকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রথম পর্যায়ে

এনডিএম’র ৩০ জন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয় ।
তারমধ্য জাবেদুর রহমান জনি গাংনী শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মরহুম আমিনুর রহমান ঝন্টুর ছেলে।গাংনী মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এস. এস. সি পাশ করে যশোরের বি. সি. এম. সি কলেজ ও ঢাকার আই. আই. এস. টি থেকে ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং শেষ করেন। কর্মজীবন শুরু সাংবাদিকতার মাধ্যমে। কিছুদিন ট্রাভেল (এয়ার টিকেটিং) এজেন্সিতে কিছুদিন চাকুরী করারপর যোগদেন স্বনামধন্য মাইলস্টোন স্কুল অ্যান্ড কলেজে। এক সময় শুরু করেন নিজের ব্যবসা ।

২০১৬ সালে বাবার অকাল মৃত্যুতে পরিবারের সিদ্ধান্তে ফিরে আসেন নিজ বাড়িতে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি দুই সন্তানের জনক। ছাত্র জীবন থেকেই শুরু করেছিলেন সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ড। সমাজসেবার লক্ষ নিয়েই এনডিএম- এর মাননীয় চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজের হাত ধরে যোগদেন রাজনীতিতে। তিনি গাংনী উপজেলা এনডিএম- এর প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক এবং মেহেরপুর জেলা এনডিএম- এর সমন্বয়কারী ছিলেন। বর্তমানে কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আছেন। তার রাজনীতির লক্ষ্যই হলো জনসেবা।

মো. জাবেদুর রহমান জনি বলেন, “আমার রাজনীতির মূল চালিকাশক্তি হলো বয়োজ্যেষ্ঠদের দোয়া ও তরুণ প্রজন্ম। আমি রাজনীতিতে এসেছি সমাজ ও দেশের জন্য কাজ করতে। আগামী নির্বাচনে তরুণ ভোটাররাই হবেন নিয়ামক শক্তি। এক তৃতীয়াংশের বেশি নতুন এবং তরুণ ভোটারদের সিদ্ধান্তের ওপরই নির্ভর করবে আগামীতে বাংলাদেশের সাধারণ জনগণের ভাগ্য। এজন্য তরুণদের বলতে চাই, পরিবর্তনের আওয়াজ তুলুন। যারা রাজনীতি করেন শুধু তারাই নন, রাজনীতির বাইরে থাকা তরুণদেরকেও বলছি, সঠিক সিদ্ধান্ত নিন। পরিবর্তনের এখনই সঠিক সময়।জাবেদুর রহমান জনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর- ২ এনডিএম সমর্থিত গণ ঐক্যের প্রার্থী ছিলেন।