ঢাকা ০৬:২০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
জাতীয় সংবাদ পরিষদের সভাপতি নূর হাকিম সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী নান্টু পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নিজের ঘরে নিজে আগুন দিয়ে মিথ্যা মামলায় হয়রানি গ্রামবাসীদের ফাঁসানোর চেষ্টা! সেুঁজুতির মনোনয়ন নিয়ে সাতক্ষীরায় তোলপাড়, শশুর রাজাকার! ভাসুর বিএনপি নেতা সাতকানিয়া ছদাহা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে অবৈধভাবে মাটি কাটায় ৫০ (হাজার) টাকা জরিমানা বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের ববি শাখার নেতৃত্বে ইব্রাহিম-শান্ত প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

রংপুর-১ আসনে স্থানীয়দের দাবী স্থানীয় প্রার্থী চাই

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ০৬:৩০:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ জুন ২০২৩
  • ২১৫২ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক,রংপুর:রংপুর ১ আসনটি গংগাচড়াউপজেলা ও রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (রসিক) ১-৮ নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত । স্থানীয়দের দাবি স্থানীয়দের সাথে যোগাযোগ ও খোঁজ খবর নেতার জন্য স্থানীয় এমপি দরকার। যে কোন কাজে যেনো স্থানীয় এমপির কাছে যেতে পারে। এই আসনে যারা সংসদ সদস্য প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পায় তারা অন্য কোন উপজেলা হতে এসে মনোনয়ন পেয়ে এমপি নির্বাচিত হয় বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

এদিকে প্রচার প্রচারণায় আওয়ামীলীগ , জাতীয় পার্টিকে মাঠে দেখা গেলেও বিএনপিকে দেখা যাচ্ছে না। প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে স্থানীয় প্রার্থী হিসেবে আওয়ামীলীগ এর রংপুর জেলা কমিটির সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে আসাদুজ্জামান বাবলু ও জাতীয় পার্টির ছাত্র সংগঠন জাতীয় ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সভাপতি ও রংপুর জেলা জাপার সদস্য আল মামুন। নির্বাচনের এখানো ৭ মাস বাকি রয়েছে। প্রার্থীর সমর্থকরা ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। বিশেষ করে ঈদ উপলক্ষে পোস্টার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে গংগাচড়া উপজেলা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলছে আলোচনা । দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সারাদেশের মতো রংপুর গংগাচড়া-১ আসনেও সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচার প্রচারণা শুরু হয়ে গেছে।এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে আল মামুনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন – রংপুর-১ আসনে গত ৩৭ বছরে স্থানীয় প্রার্থী না থাকায় স্থানীয়দের চাওয়ার পরিপেক্ষিতে প্রার্থী হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করতে চাই। এই আসনটি বরাবরই জাতীয় পার্টির দুর্গ বলে এই আসনের স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ স্যারের প্রতি ভাললাগা হতেই আমি জাতীয় ছাত্র সমাজের কেন্দ্রীয় সাবেক সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছি ৩ বছর। ৩ বছর ভাল কাজ করার পরে আমি কেন্দ্রীয় সভাপতির দায়িত্ব পালন করছি বর্তমানে। মোট জনসংখ্যার তিন ভাগের একভাগ তরুন। এই তরুন ভোটাররাই আগামীদিনে দেশের নেতৃত্ব নির্ধারণ করবে। গঙ্গাচড়ার মানুষ অনেক অবহেলিত তাদের চাওয়া স্থানীয় একজন এমপি হলে তাদের সুখ দুঃখের সাথী হতে পারবে। আশা করি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের স্যার স্থানীয়দের দাবীর কথা বিবেচনা করে জাতীয় পার্টি হতে আমাকে মনোনয়ন দিলে বিপুল ভোটে জয়লাভ করা সম্ভব।

প্রচার প্রচারণা কম থাকলেও থেমে নেই এই আসনের অন্যান্য প্রার্থীরা,এই আসনে এখন নাম শোনা যাচ্ছে, জাতীয় পার্টি হতে বহিস্কৃত মশিউর রহমান রাঙ্গাএমপি , এরশাদের ভাতিজা ও সাবের এমপি হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ, , বিএনপির ওয়াহেদুজ্জামান মাবুসহ একাধিক নেতার নাম শোনা যাচ্ছে এই আসনে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

জাতীয় সংবাদ পরিষদের সভাপতি নূর হাকিম সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী নান্টু

রংপুর-১ আসনে স্থানীয়দের দাবী স্থানীয় প্রার্থী চাই

আপডেট সময় : ০৬:৩০:৪৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৮ জুন ২০২৩

নিজস্ব প্রতিবেদক,রংপুর:রংপুর ১ আসনটি গংগাচড়াউপজেলা ও রংপুর সিটি কর্পোরেশনের (রসিক) ১-৮ নং ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত । স্থানীয়দের দাবি স্থানীয়দের সাথে যোগাযোগ ও খোঁজ খবর নেতার জন্য স্থানীয় এমপি দরকার। যে কোন কাজে যেনো স্থানীয় এমপির কাছে যেতে পারে। এই আসনে যারা সংসদ সদস্য প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পায় তারা অন্য কোন উপজেলা হতে এসে মনোনয়ন পেয়ে এমপি নির্বাচিত হয় বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।

এদিকে প্রচার প্রচারণায় আওয়ামীলীগ , জাতীয় পার্টিকে মাঠে দেখা গেলেও বিএনপিকে দেখা যাচ্ছে না। প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে স্থানীয় প্রার্থী হিসেবে আওয়ামীলীগ এর রংপুর জেলা কমিটির সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে আসাদুজ্জামান বাবলু ও জাতীয় পার্টির ছাত্র সংগঠন জাতীয় ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সভাপতি ও রংপুর জেলা জাপার সদস্য আল মামুন। নির্বাচনের এখানো ৭ মাস বাকি রয়েছে। প্রার্থীর সমর্থকরা ছুটছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারে। বিশেষ করে ঈদ উপলক্ষে পোস্টার-ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে গংগাচড়া উপজেলা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলছে আলোচনা । দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সারাদেশের মতো রংপুর গংগাচড়া-১ আসনেও সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচার প্রচারণা শুরু হয়ে গেছে।এ বিষয়ে জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে আল মামুনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন – রংপুর-১ আসনে গত ৩৭ বছরে স্থানীয় প্রার্থী না থাকায় স্থানীয়দের চাওয়ার পরিপেক্ষিতে প্রার্থী হিসেবে নিজেকে উপস্থাপন করতে চাই। এই আসনটি বরাবরই জাতীয় পার্টির দুর্গ বলে এই আসনের স্থানীয় বাসিন্দা হিসেবে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ স্যারের প্রতি ভাললাগা হতেই আমি জাতীয় ছাত্র সমাজের কেন্দ্রীয় সাবেক সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছি ৩ বছর। ৩ বছর ভাল কাজ করার পরে আমি কেন্দ্রীয় সভাপতির দায়িত্ব পালন করছি বর্তমানে। মোট জনসংখ্যার তিন ভাগের একভাগ তরুন। এই তরুন ভোটাররাই আগামীদিনে দেশের নেতৃত্ব নির্ধারণ করবে। গঙ্গাচড়ার মানুষ অনেক অবহেলিত তাদের চাওয়া স্থানীয় একজন এমপি হলে তাদের সুখ দুঃখের সাথী হতে পারবে। আশা করি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের স্যার স্থানীয়দের দাবীর কথা বিবেচনা করে জাতীয় পার্টি হতে আমাকে মনোনয়ন দিলে বিপুল ভোটে জয়লাভ করা সম্ভব।

প্রচার প্রচারণা কম থাকলেও থেমে নেই এই আসনের অন্যান্য প্রার্থীরা,এই আসনে এখন নাম শোনা যাচ্ছে, জাতীয় পার্টি হতে বহিস্কৃত মশিউর রহমান রাঙ্গাএমপি , এরশাদের ভাতিজা ও সাবের এমপি হোসেন মকবুল শাহরিয়ার আসিফ, , বিএনপির ওয়াহেদুজ্জামান মাবুসহ একাধিক নেতার নাম শোনা যাচ্ছে এই আসনে।