ঢাকা ০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
জাতীয় সংবাদ পরিষদের সভাপতি নূর হাকিম সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী নান্টু পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নিজের ঘরে নিজে আগুন দিয়ে মিথ্যা মামলায় হয়রানি গ্রামবাসীদের ফাঁসানোর চেষ্টা! সেুঁজুতির মনোনয়ন নিয়ে সাতক্ষীরায় তোলপাড়, শশুর রাজাকার! ভাসুর বিএনপি নেতা সাতকানিয়া ছদাহা জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে অবৈধভাবে মাটি কাটায় ৫০ (হাজার) টাকা জরিমানা বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের ববি শাখার নেতৃত্বে ইব্রাহিম-শান্ত প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন

রায়পুরে জমিজমার বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় দুই সহোদর আহত।

  • আপডেট সময় : ০২:২৭:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অক্টোবর ২০২৩
  • ২১৬০ বার পড়া হয়েছে

পীরজাদা মোঃ মাসুদ হোসাইন, রায়পুর, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে জমিজমার বিরোধের জেরে দুই সহোদর ভাইকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে আহত ওমর ফারুক বাদী হয়ে, আশরাফুল আলম রবি, সাইফুল ইসলাম রেজু, ও শাহাদাৎ হোসেন রনির বিরুদ্ধে রায়পুর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।

এজাহার সূত্রে ও সরেজমিন গিয়ে জানা যায়, রায়পুর ৬ নং কেরোয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইদ্রিস পাটোয়ারী বাড়ির মৃত সিরাজ উল্যা পাটোয়ারীর ছেলে ওমর ফারুক ও সোলাইমানের সাথে মোঃ আবুল কাশেমের সাথে ২ শতাংশ ভূমি নিয়া বিরোধ চলিয়া আসিতেছে। ৬ নং করোয়ার ৫ নং তৌজির ৩৩ নং কেরোয়া মৌজার আর এস ৩৯৫৮ নং খতিয়ানের ১৪০৪৭ নং দাগে ২ শতাংশ জমি সিরাজ উল্লার নামে রেকর্ড এবং মৃত সিরাজ উল্লার ওয়ারিশগন উক্ত জমি ভোগ দখলে রহিয়াছে। এজাহারের বাদী ওমর ফারুক জানান, দীর্ঘ ৪০ বছর যাবত এই জমি আমাদের নামে রেকর্ড এবং আমরা ভোগ দখলে আছি। ইতিপূর্বেও বিবাদীগন উক্ত ভূমি নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে মিছ মামলা নং ৩৮২/২০ দায়ের করে, উক্ত মামলা স্বাক্ষ-প্রমান ও তদন্ত রিপোর্টে আমাদের মালিকানা ও দখন প্রমান হওয়ায় খারিজ হয়ে যায়। বিবাদীগন বিভিন্ন সময়ে আমাদেরকে বিভিন্ন হুমকি ধমকি দেয়ায় আমরা বিজ্ঞ আদালতে ১০৭/১১৭ ধারায় বিবাদীদের বিরুদ্ধ একটি মামলা দায়ের করি, বিবাদীরা আমাদের আর কোন ক্ষতি করবেনা মর্মে বিজ্ঞ আদালতে অঙ্গিকার করে আসে। গত শুক্রবার সকাল ৯ টায় উক্ত ভূমিতে আমরা ঘর নির্মান করতে গেলে বিবাদীগন আমি এবং আমার ভাই সোলাইমানের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে, তাদের মারপিটে আমরা দুই ভাই মারাত্মক আহত হই। এসময় বিবাদীরা আমাদের বাগানের অনেকগুলো গাছ কেটে ফেলে। ৯৯৯ এ কল দিলে তাৎক্ষনিক রায়পুর থানার এস আই আবু হানিফ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়া আসিলে বিবাদীরা স্থান ত্যাগ করে। আশপাশের লোকজন আমাদেরকে উদ্ধার করে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। যার রেজিষ্ট্রেশন নং ৮৩৫/১৩১, ও ৮৩৬/১৩২, তাং ১৩/১০/২০২৩। বিবাদীদের আঘাতে আমার ডান হাতের কব্জিতে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হই, তাছাড়া সারা শরীরে মারাত্মক ফুলা জখম হই। আমার ভাই সোলায়মানের পিঠে থেতলানো জখম হয় এবং সারা শরীরে ফুলা জখম হয়।

এ ব্যাপারে ৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ সোহেল বলেন, বিষয়টি আমি অবগত আছি, মিমাংসা করে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েও ব্যার্থ হই। বাদী ওমর ফারুকের চাচা সাবেক মেম্বার মমিন উল্লা পাটোয়ারী বলেন, সম্পুর্ন অন্যায়ভাবে আবুল কাশেম ও তার ছেলেরা আমার ভাতিজাদের উপর নির্যাতন করে আসছে, আমি এর বিচার চাই। স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তি হারুনুর রশীদ পাটোয়ারী বলেন, বাদী ও বিবাদীদের স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হই। বিবাদী রবি, রেজু ও রনিকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে তারা গাছ কেটে ফেলার কথা স্বীকার করে বলেন, উক্ত বিরোধীয় জমিতে আমরা ১ শতাংশ জমিন দাবী করে আসছি, গঠনার সময় তারা উক্ত জমিতে গৃহ নির্মান করতে গেলে আমরা বাধা দেই, এক পর্যায়ে দুই পক্ষের হাতাহাতি হয়। আমরা এর উপযুক্ত সমাদান চাই।

রায়পুর থানার ওসি শিপন বড়ুয়া বলেন, উক্ত বিষয়ে ওমর ফারুক বাদী হয় একটি লিখিত এজাহার জমা দিয়েছে, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে, তদন্তের পর অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

০১৭১৪৮৫৪৫৬৮

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

জাতীয় সংবাদ পরিষদের সভাপতি নূর হাকিম সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী নান্টু

রায়পুরে জমিজমার বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় দুই সহোদর আহত।

আপডেট সময় : ০২:২৭:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অক্টোবর ২০২৩

পীরজাদা মোঃ মাসুদ হোসাইন, রায়পুর, লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে জমিজমার বিরোধের জেরে দুই সহোদর ভাইকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে আহত ওমর ফারুক বাদী হয়ে, আশরাফুল আলম রবি, সাইফুল ইসলাম রেজু, ও শাহাদাৎ হোসেন রনির বিরুদ্ধে রায়পুর থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।

এজাহার সূত্রে ও সরেজমিন গিয়ে জানা যায়, রায়পুর ৬ নং কেরোয়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইদ্রিস পাটোয়ারী বাড়ির মৃত সিরাজ উল্যা পাটোয়ারীর ছেলে ওমর ফারুক ও সোলাইমানের সাথে মোঃ আবুল কাশেমের সাথে ২ শতাংশ ভূমি নিয়া বিরোধ চলিয়া আসিতেছে। ৬ নং করোয়ার ৫ নং তৌজির ৩৩ নং কেরোয়া মৌজার আর এস ৩৯৫৮ নং খতিয়ানের ১৪০৪৭ নং দাগে ২ শতাংশ জমি সিরাজ উল্লার নামে রেকর্ড এবং মৃত সিরাজ উল্লার ওয়ারিশগন উক্ত জমি ভোগ দখলে রহিয়াছে। এজাহারের বাদী ওমর ফারুক জানান, দীর্ঘ ৪০ বছর যাবত এই জমি আমাদের নামে রেকর্ড এবং আমরা ভোগ দখলে আছি। ইতিপূর্বেও বিবাদীগন উক্ত ভূমি নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে মিছ মামলা নং ৩৮২/২০ দায়ের করে, উক্ত মামলা স্বাক্ষ-প্রমান ও তদন্ত রিপোর্টে আমাদের মালিকানা ও দখন প্রমান হওয়ায় খারিজ হয়ে যায়। বিবাদীগন বিভিন্ন সময়ে আমাদেরকে বিভিন্ন হুমকি ধমকি দেয়ায় আমরা বিজ্ঞ আদালতে ১০৭/১১৭ ধারায় বিবাদীদের বিরুদ্ধ একটি মামলা দায়ের করি, বিবাদীরা আমাদের আর কোন ক্ষতি করবেনা মর্মে বিজ্ঞ আদালতে অঙ্গিকার করে আসে। গত শুক্রবার সকাল ৯ টায় উক্ত ভূমিতে আমরা ঘর নির্মান করতে গেলে বিবাদীগন আমি এবং আমার ভাই সোলাইমানের উপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ঝাপিয়ে পড়ে, তাদের মারপিটে আমরা দুই ভাই মারাত্মক আহত হই। এসময় বিবাদীরা আমাদের বাগানের অনেকগুলো গাছ কেটে ফেলে। ৯৯৯ এ কল দিলে তাৎক্ষনিক রায়পুর থানার এস আই আবু হানিফ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়া আসিলে বিবাদীরা স্থান ত্যাগ করে। আশপাশের লোকজন আমাদেরকে উদ্ধার করে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। যার রেজিষ্ট্রেশন নং ৮৩৫/১৩১, ও ৮৩৬/১৩২, তাং ১৩/১০/২০২৩। বিবাদীদের আঘাতে আমার ডান হাতের কব্জিতে মারাত্মক আঘাতপ্রাপ্ত হই, তাছাড়া সারা শরীরে মারাত্মক ফুলা জখম হই। আমার ভাই সোলায়মানের পিঠে থেতলানো জখম হয় এবং সারা শরীরে ফুলা জখম হয়।

এ ব্যাপারে ৫ নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ সোহেল বলেন, বিষয়টি আমি অবগত আছি, মিমাংসা করে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েও ব্যার্থ হই। বাদী ওমর ফারুকের চাচা সাবেক মেম্বার মমিন উল্লা পাটোয়ারী বলেন, সম্পুর্ন অন্যায়ভাবে আবুল কাশেম ও তার ছেলেরা আমার ভাতিজাদের উপর নির্যাতন করে আসছে, আমি এর বিচার চাই। স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তি হারুনুর রশীদ পাটোয়ারী বলেন, বাদী ও বিবাদীদের স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হই। বিবাদী রবি, রেজু ও রনিকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে তারা গাছ কেটে ফেলার কথা স্বীকার করে বলেন, উক্ত বিরোধীয় জমিতে আমরা ১ শতাংশ জমিন দাবী করে আসছি, গঠনার সময় তারা উক্ত জমিতে গৃহ নির্মান করতে গেলে আমরা বাধা দেই, এক পর্যায়ে দুই পক্ষের হাতাহাতি হয়। আমরা এর উপযুক্ত সমাদান চাই।

রায়পুর থানার ওসি শিপন বড়ুয়া বলেন, উক্ত বিষয়ে ওমর ফারুক বাদী হয় একটি লিখিত এজাহার জমা দিয়েছে, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে, তদন্তের পর অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

০১৭১৪৮৫৪৫৬৮