ঢাকা ০৪:২১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে শাহজালালে যৌথ অভিযানে ২ কেজি ১০৪ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার, গ্রেফতার ৪ যাত্রী গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী জাতীয় যুব কাউন্সিলের সভাপতি:মাসুদ আলম ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত রামেবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন যুবলীগ নেতার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী গ্রেফতার! ৪ মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি’কে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে দাগনভূঁঞা থানা পুলিশ দূর্নীতিমুক্ত রিহ‍্যাব গড়তে চান আলিমুল্লাহ খোকন টিলাগাঁও আজিজুন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ের তৃতীয় বারের মত সভাপতি নির্বাচিত শামিম আহমদ ‘কমান্ডার খন্দকার আল মঈন এর ‘কিশোর গ্যাং-কীভাবে এলো, কীভাবে রুখবো’দুইটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

শিশু শিল্পী অদিতি বড় মাপের অভিনয় শিল্পী হতে চায়

  • মাসুদ রানা
  • আপডেট সময় : ০৩:২০:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩
  • ২৮৮০ বার পড়া হয়েছে

বিনোদন প্রতিবেদক :- মায়িহা আহমেদ অদিতি এ সময়ের জনপ্রিয় একজন শিশু শিল্পী বিভিন্ন আবৃত্তিতে পেয়েছে নানা রকম পুরস্কার এটিএন বাংলা থেকে সেরা দশে সেকেন্ড হয়েছেন (পাচঁ বছর বয়সে) চার বছরের স্কলারশিপ ও পেয়েছে এই শিশুশিল্পী আবৃত্তি করে এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে আবৃত্তি পুরস্কার পেয়েছেন অনেক মন্ত্রীদের হাত থেকে।

তার অভিনয় জীবন শুরু মাএ ৩ বছর বয়স থেকে প্রথমে সাপ্তাহিক নাটক বিটিভিতে প্রচার হয়েছে এই থেকেই তার অভিনয় পথ চলা তার বয়স মাত্র ৬বছর এর মধ্যে অভিনয় দিয়ে মানুষের মন জয় করে নিয়েছে এখন অনেকে তার আসল নাম ভুলে গিয়েছে এখন সততা নামে অনেকে ডাকে তাকে। দীপ্ত টিভির মান অভিমান ধারাবাহিক নাটকে সততা চরিত্রে অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে উদীয়মান শিশু শিল্পী হিসাবে।মনোনয়ন পেয়েছে দীপ্ত থেকে 2022 সালে
এছাড়া বাংলাদেশ টেলিভিশনে অনেক সাপ্তাহিক নাটক,ধারাবাহিক নাটকেও দেখতে পাওয়া যায় এই শিশু শিল্পীকে গতবছর নাট্য অভিনেতা অপূর্বের সঙ্গে একটি সিঙ্গেল নাটকের কাজ করে মানুষের মন জয় করে নিয়েছে এই ছোট্ট শিশু শিল্পী তার অভিনয় দেখে অনেকেই কেঁদেছে তার প্রথম মুভি বঙ্গমাতা গৌতম কৈরীর সেখানে তার চরিত্র ছিল ফজিলাতুন্নেছা ছোটবেলা। এছাড়াও একটি ওয়েভ কাজ করছে সে জাকিয়া বারী মম এর মেয়ের চরিত্রে কাজ করেছে খুবই অসাধারণ গল্প ছিল, “কোহিনুর”।

রায়হান রাফির মুভি” Friday “যেখানে অদিতি তমা মির্জা এবং নাসির উদ্দিনের মেয়ে চরিত্রে কাজ করছেন
মীর সাব্বির এর ধারাবাহিক নাটক বিদেশি ছেলেতেও অভিনয় করে বেশ প্রশংসা পেয়েছে সবার।

Panking অসংখ্য কাজ করছে অদিতি সেখানে মিলিয়ন মিলিয়ন ভিউ এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কাজে অদিতি কে দেখতে পাওয়া যায় এছাড়া TVC, OVC করেছে অসংখ্য banglalink,foodpanda,RFL আরো বিভিন্ন বিজ্ঞাপনে দেখতে পাওয়া যায়।

মায়িহা আহমেদ অদিতির সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে জানা যায় ঈদের কাজ শেষ করে এখন পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত আছে এই শিশু শিল্পী তার পরিবারের কথা অনেক বেশি কাজ করার ইচ্ছা নেই অল্প কাজ করবে ভালো ভালো গল্প দেখে কাজ করবে।

অদিতিকে নিয়ে অনেকেই কাজ করতে চায় সব জায়গায় তো কাজ করানো যায় না গল্পের ব্যাপার থাকে, কাজের জায়গার ব্যাপার থাকে কাজটা কোন জায়গায় রিলিজ হবে এটাও একটা বিষয় থাকে অনেকেই অনেক সময় মন খারাপ করে কিন্তু করার কিছু নেই দিন শেষে তো সবাই কাজটাই দেখে।
কিছু কাছের ভাইদের মন রাখার জন্য দুই এক যায়গায় কাজ করছে কিন্তু সেই কাজগুলো দেখে মর্মহত হয়েছি এতো বাজে কাজ। এই এক দুটি কাজ জানিনা পরবর্তীতে কতটা বাজে প্রভাব করে ক্যারিয়াতে।।

আর সবার আগে পড়াশোনা তো অনেক দরকার তাই সব মিলিয়েই কিছুটা কম কাজ করা হচ্ছে।

বর্তমানে বাংলাদেশ শিশু একাডেমীতে অভিনয় এবং আবৃত্তি নিয়ে পড়াশোনা করছে অদিতি।

অদিতির পরিবার জানান অভিনয় ভালো করলে অবশ্যই অভিনয় থাকবে অভিনয় জায়গাটা খারাপ না বুঝেশুনে পা ফেলে কাজ করতে হবে।

তারা মনে করেন প্রতিটা জায়গায় ভালো-মন্দ আছে তাই সবাইকে বুঝেশুনে কাজ করতে হবে ও এখনো ও অনেক ছোট বড় হয়ে সিদ্ধান্ত যখন নিতে পারবে যখন বুঝবে তার জন্য কোনটা সবচেয়ে ভালো সেটাই করবে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

প্রতারণার মামলায় যুব-মহিলালীগ নেত্রী ও তার স্বামী রিমান্ডে

শিশু শিল্পী অদিতি বড় মাপের অভিনয় শিল্পী হতে চায়

আপডেট সময় : ০৩:২০:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ মে ২০২৩

বিনোদন প্রতিবেদক :- মায়িহা আহমেদ অদিতি এ সময়ের জনপ্রিয় একজন শিশু শিল্পী বিভিন্ন আবৃত্তিতে পেয়েছে নানা রকম পুরস্কার এটিএন বাংলা থেকে সেরা দশে সেকেন্ড হয়েছেন (পাচঁ বছর বয়সে) চার বছরের স্কলারশিপ ও পেয়েছে এই শিশুশিল্পী আবৃত্তি করে এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে আবৃত্তি পুরস্কার পেয়েছেন অনেক মন্ত্রীদের হাত থেকে।

তার অভিনয় জীবন শুরু মাএ ৩ বছর বয়স থেকে প্রথমে সাপ্তাহিক নাটক বিটিভিতে প্রচার হয়েছে এই থেকেই তার অভিনয় পথ চলা তার বয়স মাত্র ৬বছর এর মধ্যে অভিনয় দিয়ে মানুষের মন জয় করে নিয়েছে এখন অনেকে তার আসল নাম ভুলে গিয়েছে এখন সততা নামে অনেকে ডাকে তাকে। দীপ্ত টিভির মান অভিমান ধারাবাহিক নাটকে সততা চরিত্রে অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে উদীয়মান শিশু শিল্পী হিসাবে।মনোনয়ন পেয়েছে দীপ্ত থেকে 2022 সালে
এছাড়া বাংলাদেশ টেলিভিশনে অনেক সাপ্তাহিক নাটক,ধারাবাহিক নাটকেও দেখতে পাওয়া যায় এই শিশু শিল্পীকে গতবছর নাট্য অভিনেতা অপূর্বের সঙ্গে একটি সিঙ্গেল নাটকের কাজ করে মানুষের মন জয় করে নিয়েছে এই ছোট্ট শিশু শিল্পী তার অভিনয় দেখে অনেকেই কেঁদেছে তার প্রথম মুভি বঙ্গমাতা গৌতম কৈরীর সেখানে তার চরিত্র ছিল ফজিলাতুন্নেছা ছোটবেলা। এছাড়াও একটি ওয়েভ কাজ করছে সে জাকিয়া বারী মম এর মেয়ের চরিত্রে কাজ করেছে খুবই অসাধারণ গল্প ছিল, “কোহিনুর”।

রায়হান রাফির মুভি” Friday “যেখানে অদিতি তমা মির্জা এবং নাসির উদ্দিনের মেয়ে চরিত্রে কাজ করছেন
মীর সাব্বির এর ধারাবাহিক নাটক বিদেশি ছেলেতেও অভিনয় করে বেশ প্রশংসা পেয়েছে সবার।

Panking অসংখ্য কাজ করছে অদিতি সেখানে মিলিয়ন মিলিয়ন ভিউ এছাড়া বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কাজে অদিতি কে দেখতে পাওয়া যায় এছাড়া TVC, OVC করেছে অসংখ্য banglalink,foodpanda,RFL আরো বিভিন্ন বিজ্ঞাপনে দেখতে পাওয়া যায়।

মায়িহা আহমেদ অদিতির সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে জানা যায় ঈদের কাজ শেষ করে এখন পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত আছে এই শিশু শিল্পী তার পরিবারের কথা অনেক বেশি কাজ করার ইচ্ছা নেই অল্প কাজ করবে ভালো ভালো গল্প দেখে কাজ করবে।

অদিতিকে নিয়ে অনেকেই কাজ করতে চায় সব জায়গায় তো কাজ করানো যায় না গল্পের ব্যাপার থাকে, কাজের জায়গার ব্যাপার থাকে কাজটা কোন জায়গায় রিলিজ হবে এটাও একটা বিষয় থাকে অনেকেই অনেক সময় মন খারাপ করে কিন্তু করার কিছু নেই দিন শেষে তো সবাই কাজটাই দেখে।
কিছু কাছের ভাইদের মন রাখার জন্য দুই এক যায়গায় কাজ করছে কিন্তু সেই কাজগুলো দেখে মর্মহত হয়েছি এতো বাজে কাজ। এই এক দুটি কাজ জানিনা পরবর্তীতে কতটা বাজে প্রভাব করে ক্যারিয়াতে।।

আর সবার আগে পড়াশোনা তো অনেক দরকার তাই সব মিলিয়েই কিছুটা কম কাজ করা হচ্ছে।

বর্তমানে বাংলাদেশ শিশু একাডেমীতে অভিনয় এবং আবৃত্তি নিয়ে পড়াশোনা করছে অদিতি।

অদিতির পরিবার জানান অভিনয় ভালো করলে অবশ্যই অভিনয় থাকবে অভিনয় জায়গাটা খারাপ না বুঝেশুনে পা ফেলে কাজ করতে হবে।

তারা মনে করেন প্রতিটা জায়গায় ভালো-মন্দ আছে তাই সবাইকে বুঝেশুনে কাজ করতে হবে ও এখনো ও অনেক ছোট বড় হয়ে সিদ্ধান্ত যখন নিতে পারবে যখন বুঝবে তার জন্য কোনটা সবচেয়ে ভালো সেটাই করবে।