ঢাকা ১১:২৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
৮ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের ভিডিও নিয়ে চিন্তিত সীমা সরকার দেশজুড়ে তোলপাড়! বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক সোসাইটি জেলা কমিটি অনুমোদন সভাপতি কামরুজ্জামান সম্পাদক বাদশা এটিএন বাংলার চায়ের চুমুকে সংগঠক ও বিনোদন সাংবাদিক আবুল হোসেন মজুমদার ৭ ঘণ্টা অন্ধকারে রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলের প্রধান কার্যালয় টাটা মটরস বাংলাদেশে উদ্বোধন করলো টাটা যোদ্ধা প্রাইভেট পড়ানোর নামে স্কুল ছাত্রদের সাথে বিকৃত যৌনাচার শিক্ষক’কে গ্রেফতার করেছে: সিআইডি সীতাকুণ্ডে হজ্ব প্রশিক্ষণ কর্মশালা সম্পন্ন সীতাকুণ্ডে ট্রাকে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কা, চালক নিহত চট্টগ্রাম কলেজ শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে বাকেরগঞ্জে দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত
জাতির পিতার সমাধি জেয়ারত

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল করবেন সিডিএ চেয়ারম্যান

  • আপডেট সময় : ০৯:০৬:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪
  • ২০৪২ বার পড়া হয়েছে

 

গোপালগেঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত এবং বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ।

এ উদ্দেশ্যে আজ বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রাম থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন চউক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউনুছ। তাঁর সফরসঙ্গী হচ্ছেন চট্টগ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধারা, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান, শহীদ পরিবারের সদস্য, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

১৭ মে শুক্রবার সকালে গোপালগেঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত করবেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ। পাশাপাশি ১৯৮১ সালের ১৭ মে বঙ্গবন্ধু কন্যা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্ন দিবস উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া, মোনাজাত ও মিলাদ মাহফিল আয়োজন করা হয়েছে চউক চেয়ারম্যানের উদ্যোগে।

চউক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউনুছ বলেন, বাঙালি জাতির কখনো নিজস্ব স্বাধীন রাষ্ট্র ছিল না। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা। তিনি বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখিয়েছেন, ঐক্যবদ্ধ করেছেন এবং মুক্তিযুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করেছেন। তিনি না হলে বাঙালির স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বপ্ন কখনোই সফল হতো না। তাই জাতির জনকের সোনার বাংলার স্বপ্ন বানচাল করতে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি আজো তৎপর। ১৯৭৫ সালের পর জাতির জনকের কন্যা আজকের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল বাধা পেরিয়ে পিতার সেই অপূর্ণ স্বপ্ন পূরণের জন্য ১৯৮১ সালের ১৭ মে দেশে ফিরেছিলেন। শত প্রতিকূলতা আর মৃত্যুর ঝুঁকি মাথায় নিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে আজ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন। তাই এ দিনটি বাঙালি জাতিয়াবাদে বিশ্বাসীদের জন্য পুন:জাগরণের দিন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

৮ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের ভিডিও নিয়ে চিন্তিত সীমা সরকার দেশজুড়ে তোলপাড়!

জাতির পিতার সমাধি জেয়ারত

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল করবেন সিডিএ চেয়ারম্যান

আপডেট সময় : ০৯:০৬:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪

 

গোপালগেঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত এবং বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ।

এ উদ্দেশ্যে আজ বৃহস্পতিবার রাতে চট্টগ্রাম থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা হবেন চউক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউনুছ। তাঁর সফরসঙ্গী হচ্ছেন চট্টগ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধারা, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান, শহীদ পরিবারের সদস্য, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

১৭ মে শুক্রবার সকালে গোপালগেঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজার জিয়ারত করবেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইউনুছ। পাশাপাশি ১৯৮১ সালের ১৭ মে বঙ্গবন্ধু কন্যা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্ন দিবস উপলক্ষ্যে বিশেষ দোয়া, মোনাজাত ও মিলাদ মাহফিল আয়োজন করা হয়েছে চউক চেয়ারম্যানের উদ্যোগে।

চউক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইউনুছ বলেন, বাঙালি জাতির কখনো নিজস্ব স্বাধীন রাষ্ট্র ছিল না। হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা। তিনি বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখিয়েছেন, ঐক্যবদ্ধ করেছেন এবং মুক্তিযুদ্ধের জন্য প্রস্তুত করেছেন। তিনি না হলে বাঙালির স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বপ্ন কখনোই সফল হতো না। তাই জাতির জনকের সোনার বাংলার স্বপ্ন বানচাল করতে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি আজো তৎপর। ১৯৭৫ সালের পর জাতির জনকের কন্যা আজকের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল বাধা পেরিয়ে পিতার সেই অপূর্ণ স্বপ্ন পূরণের জন্য ১৯৮১ সালের ১৭ মে দেশে ফিরেছিলেন। শত প্রতিকূলতা আর মৃত্যুর ঝুঁকি মাথায় নিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে আজ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত করেছেন। তাই এ দিনটি বাঙালি জাতিয়াবাদে বিশ্বাসীদের জন্য পুন:জাগরণের দিন।